কতটা কুঁড়ে আপনি? দেখে নিন WHO-এর রিপোর্ট

জেনেভা: কোন কিছুই ঠিক করে উঠতে ইচ্ছা করে না? মানে মনে হয় একটু যদি গড়িয়ে নেওয়া যেত, কি ভালোই না হত! ঠিক এই রকম মনোভাবের মানুষগুলোই যদি কোনও দেশে বেশি থাকে? তবে তো তা কুঁড়ের রাজত্ব, তাই না? এই রকম দেশের তালিকাই বানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা ওয়ার্ল্ড হেল্থ অর্গানাইজেশন (হু)৷

তালিকায় সসম্মানে জায়গা করে নিয়েছে ভারতও৷ হুয়ের প্রকাশিত রিপোর্ট দ্যা ল্যান্সেটে কুঁড়ের দেশ হিসেবে সেরার শিরোপা পেয়েছে কুয়েত৷ সেখানে ৬৭ শতাংশ মানুষই কোনও কাজ করতে চান না ৷ এর মধ্যে ছেলেদের সংখ্যাই বেশি৷ আর সবচেয়ে কর্মক্ষম দেশ উগান্ডা৷ সেদেশে ৫.৫ শতাংশ মানুষ কাজ করেন না৷ বাকি সবাই কর্মক্ষম ও কর্মঠ৷

পড়ুন: বসে কাজ করেন? বাড়ছে ঝুঁকি

- Advertisement -

১৬৮টি দেশের তালিকায় ভারত রয়েছে ১১৭ নম্বরে৷ হিসেব বলছে আমাদের দেশের ৩৪ শতাংশ মানুষ একেবারেই কাজ করতে চান না৷ তবে খুব খারাপ স্থানে যে আমরা নেই, তা রিপোর্টই বলছে৷ অলস দেশ হিসেবে ওপরের দিক থেকে তালিকায় পর পর রয়েছে কুয়েত, আমেরিকান সামোয়া, সৌদি আরব ও ইরাক৷ এই সব দেশের মানুষ খুব কমই সক্রিয় ভাবে কোনও কাজে অংশ নেন৷

হিসেব বলছে ১৬৮টি দেশের মধ্যে ৫৫টি দেশে অর্থাৎ প্রায় ৩২.৭ শতাংশ দেশে এক তৃতীয়াংশ মানুষ কোনও কাজ করেন না৷ ১৬৮টি দেশের নিরিখে ১৫৯টি দেশে মেয়েদের তুলনায় ছেলেরা কম কাজ করেন, অর্থাৎ ছেলেরা বেশি কুঁড়ে৷ হুয়ের সমীক্ষা অনুযায়ী প্রতি চারজনের ১জন মানুষ কোনও কাজই করেননা এই সব দেশে৷
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গবেষকরা বলছেন, কুঁড়ে হওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর৷ এমনকী তাঁরা মানসিক রোগের শিকার হতে পারেন৷ হুয়ের দাবি, যাঁরা কুঁড়ে, তাঁরা মূলত এক ধরণের মানসিক রোগে আক্রান্ত৷

Advertisement
---