স্টাফ রিপোর্টার, সোনারপুর: ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে আসা লিঙ্ক ক্লিক করে হ্যাকারের ফাঁদে পড়ে যায় এক কিশোর প্রেমিক যুগল। লিঙ্কটি খুলতে ফেসবুক অ্যাকাউন্টের মেল আইডি ও পাসওয়ার্ড দেওয়ার কথা বলা ছিল। তবে সেই সব অপশন দেওয়ার আগেই ওই লিঙ্কে ক্লিক করার পরেই তাদের ফোন হ্যাক হয়ে যায় বলে অভিযোগ ওঠে৷ শুধু তাই নয়, তাদের অন্তরঙ্গ ছবি ও ব্যক্তিগত ম্যাসেজও মুহুর্তের মধ্যে হ্যাকারের হাতে চলে যায় বলে অভিযোগ।

পাশাপাশি, তাদের ব্যক্তিগত ছবি ও গোপন তথ্য সোশ্যাল মিডিয়াতে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখানো হচ্ছে বলেও দাবি করেছে ওই কিশোর যুগল৷ এই নিয়ে ক্রমশ তাদের ব্ল্যাকমেল করে চলেছে হ্যাকার৷ পরিবর্তে হ্যাকারের দাবি নগদ কুড়ি হাজার টাকা৷ জানা গিয়েছে ওই কিশোর যুগলের মধ্যে একজন এই বছর উচ্চ মাধ্যমিকের পড়ুয়া ও অপরজন মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী৷ তবে এমন ঘটনা ঘটায় তারা দু’জনেই বেশ মানসিক চাপের মধ্যে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন৷

Advertisement

পুলিশ সূত্রে খবর, বাড়ির ভয়ে ও লজ্জায় তারা বিষয়টি নিয়ে বড়দের সঙ্গেও খোলাখুলি আলোচনা করতে পারছে না৷ তাই হ্যাকারের হাত থেকে সুরক্ষা পেতে দ্বারস্থ হয়েছে পুলিশের৷ তারা সরাসরি ভবানীভবনে যোগাযোগ করেছে বলে জানা গিয়েছে৷ গোটা বিষয় নিয়ে তারা সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে৷ এই ঘটনায় একটি জেনারেল ডায়েরি করে ছেড়ে দিয়েছে সোনারপুর থানার পুলিশ।

উল্লেখ্য, এই ধরনের ঘটনা সাইবার ক্রাইমের আওতায় পড়ে৷ সাইবার সংক্রান্ত সমস্যাকে বর্তমানে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে দেখা হয়। সাইবার আইনজীবীদের মতামত অনুযায়ী, এই ঘটনায় সরাসরি এফআইআর করা উচিৎ ছিল ওই কিশোর যুগলের। সেখানে সোনারপুর থানার পুলিশ শুধুমাত্র একটি জেনারেল ডায়েরি করে ছেড়ে দেওয়ায় তদন্তের ক্ষেত্রে পুলিশের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

----
--