গ্রেফতারি এড়াতে আদালতের দ্বারস্থ হাফিজ সৈয়দ

ইসলামাবাদ: তাকে গ্রেফতার করার পরিকল্পনা করেছে দেশের সরকার। শ্রীঘর থেকে বাঁচতে তাই আদালতের দ্বারস্থ হতে হল দাপুটে জঙ্গি নেতা হাফিজ সৈয়দকে।

আগামী বৃস্পতিবার পাকিস্তানে যাবে রাষ্ট্র সংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বিশেষ দল। দুই দিনের সফরে ইসলামাবাদে থাকবে তারা।

পাক সরকার কিছুতেই চাইছে না জামাত-উদ-দাওয়ার প্রধান এবং লস্কর-ই-তৈয়বার প্রতিষ্ঠাতার সঙ্গে সেই প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ হোক। একইসঙ্গে হাফিজ সৈয়দের কোনও ক্রিয়াকলাপ যদি সেই প্রতিনিধি দলের সদস্যদের চক্ষুশূল হয় তাহলেও বিপদ।

- Advertisement -

আরও পড়ুন- হাফিজকে বাঁচাতে অজুহাত দিচ্ছে পাকিস্তান: ভারত

একইসঙ্গে সম্প্রতি ভারতের চাপে সন্ত্রাসবাদ নিয়ে পাকিস্তানকে ভৎসর্ণা করেছে আমেরিকা। এই অবস্থায় ভারত-মার্কিন যৌঠ চাপের কাছে নতি স্বীকার করতে পারে ইসলামাবাদ। রাহশটড় সংঘের সামনে নিজেকে ভালো প্রমাণ করতে শ্রীঘরে ঢুকিয়ে দিতে পারে মুম্বই হামলার মাস্টার মাইন্ড হাফিজ সৈয়দকে। সেই আশংকা থেকেই গ্রেফতারি এড়াতে লাহোর হাইকোর্টের পিটিশন ফাইল করেছে হাফিজ।

আরও পড়ুন- ‘পূর্ণ আইনে শাস্তি হবে হাফিজের’, পাকিস্তানকে কড়া জবাব আমেরিকার

হাফিজ সইদের বিরুদ্ধে পাকিস্তানে কোনও মামলা নেই৷ কিছুদিন আগে পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী শাহিদ খাকান আব্বাসি একটি সাক্ষাত্কারে একথা জানিয়েছিলেন৷ কিন্তু ইসলামাবাদের সঙ্গে একমত নয় ওয়াশিংটন৷ আমেরিকার স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র হেথার নওরত বলেছিলেন, “আমরা ওকে সন্ত্রাসবাদী হিসেবেই গণ্য করি৷ সে সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের অংশ৷ ২০০৮ সালে মুম্বই হামলার মাস্টারমাইন্ড সে৷ অনেক মানুষকে সে মেরেছে৷ তার মধ্যে আমেরিকানরাও ছিল৷ আমাদের মতে, প্রত্যেকের শাস্তি পাওয়া উচিত৷”

Advertisement ---
---
-----