এমাসের শেষেই একাধিক ‘তেজস’ আসছে বায়ুসেনায়

নয়াদিল্লি: চলতি মাসের শেষেই ভারতীয় সেনার হাতে আরও তিনটি লাইট কমব্যাট এয়ারক্রাফট তেজস তুলে দেবে HAL. মার্চ মাসের শেষেই এই যুদ্ধবিমান দেওয়া হবে বলে সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে। এই তিনটি যুদ্ধবিমান এলে বায়ুসেনায় তেজসের প্রথম স্কোয়াড্রনে যুদ্ধবিমানের সংখ্যা হবে ছয় থেকে নয়।

HAL কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ক্রমশ যুদ্ধবিমান ডেলিভারি দেওয়ার গতি বাড়বে।

মোট ১২৩টি এই বিমান অর্ডার দিয়েছিল বায়ুসেনা। এছাড়া আরও ২০১টি আপগ্রেডেড যুদ্ধবিমান দেওয়ার কথা ভাবা হয়েছে। যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে যথেষ্ট বিমান না থাকায় এই অর্ডার দেওয়া হয়েছিল। তবে সঠিক সময়ে তেজস দিতে না পারায় অসন্তুষ্ট বায়ুসেনা।

- Advertisement -

১২৩টি তেজস কেনার জন্য খরচ হবে ৭৫ হাজার কোটি টাকা৷ বাকি তেজসগুলি হবে মার্ক-২ জেট৷ সম্পূর্ণ নতুন ফাইটার এগুলি৷ আপগ্রেটেড ব়্যাডার, উচ্চ জ্বালানি ও বেশি অস্ত্রধারণ ক্ষমতা থাকবে এই তেজসের৷ থাকবে শক্তিশালী ইঞ্জিনও৷

প্রসঙ্গত, বায়ুসেনা তেজসের গুণাগুণ এবং ক্ষমতা নিয়ে খুব একটা খুশি নয়৷ প্রায় তিন দশক আগে লাইট কমব্যাট এয়ারক্র্যাফ্ট (LCA)-কে সবুজ সংকেত দেওয়া হয়েছিল৷ তেজস ফাইটার জেটকে এর থেকে বেশি কমব্যাট রেডি করা দরকার৷ রিপোর্টে প্রকাশ, বর্তমানে সিঙ্গল-ইঞ্জিন তেজসের “সহনশীলতা” মাত্র এক ঘণ্টা৷ তুলনায়, অন্য সিঙ্গল ইঞ্জিন ফাইটার জেটের অস্ত্র বয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষমতা অনেক বেশি৷ সুইডিশ গ্রিপেন-ই-এর অস্ত্রধারণ ক্ষমতা তেজসের থেকে দ্বিগুণ৷ আমেরিকান F-16-এর অস্ত্র ধারণ ক্ষমতা তেজসের থেকে তিনগুণ৷

Advertisement ---
-----