অজয়-করিশ্মার ঘনিষ্ঠতায় আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন এই নায়িকা

মুম্বই: অ্যাকশন থেকে রোম্যান্স, অথবা একটু হটকে, অজয় দেবগণ সবসময়ই অভিনয়ের দুনিয়ায় তাঁর জাত বুঝিয়েছেন৷ তাইতো বলিউডে খান তারকাদের দাপট সত্ত্বে অজয় স্বতন্ত্রভাবে নিজের জায়গা ধরে রাখতে পেরেছেন৷ সেই বলিউড সিংঘমেরই ২ এপ্রিল জন্মদিন৷ তাই আজ চোখ রাখব অজয়ের অন্যরকম গল্পে৷

৯০-এর দশকে বহু নায়িকাদের সঙ্গেই নাম জুড়েছিল অজয়ের৷ কখনও রবিনা ট্যান্ডন, কখনও করিশ্মা কাপুর৷ দিলওয়ালে ছবির শ্যুটিংয়ের সময় অজয়-রবিনার সম্পর্কের খবর হটকেকের মতো বিক্রি হয়েছে সর্বত্র৷ তবে তাঁদের সম্পর্ক ম্যাগাজিন, সংবাদপত্রে স্থান পেলেও, বাস্তবে তা বেশিদিন স্থায়ী হয়নি৷ কারণ এরপরেই অজয়-করিশ্মার সম্পর্ক তোলপাড় করে তুলছিল বলিউডকে৷

শোনা যায়, জিগর ছবির শ্যুটিংয়ের সময় থেকেই দু’জনের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বাড়তে থাকে৷ শোনা যায় এই খবর জানতে পেরে রবিনা নাকি আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন৷ আবার ১৯৯৪সালে এক ম্যাগাজিনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অজয় বলেছিলেন, রবিনার মনরোগ বিশেষজ্ঞের কাছে যাওয়া উচিত৷ পাবলিসিটির জন্য এরকম করছেন রবিনা বলে দাবি করেছিলেন অজয়৷

- Advertisement -

আবার রবিনা নাকি বলেছিলেন, অজয়-করিশ্মার সন্তান হলে সে জেব্রার মতো হবে৷ যদিও এসব শোনা কথা হামেশাই ঘোরাফেরা করতে থাকে বলিপাড়ায়, যা সত্যাসত্য সবসময় যাচাই করা সম্ভব হয় না৷

 

 

রবিনা-করিশ্মার এই দুই অধ্যায়ের মাঝেই কাজলের সঙ্গে পরিচয় হয় অজয়ের৷ তবে মজার বিষয়, কবে ঠিক এই প্রেম শুরু হয়েছিল তা কেউই বলতে পারেন না৷ কারণ অজয়-কাজল কেউই কাওকে প্রোপোজ করেননি৷ কিন্তু একটা স্ট্রং বন্ডিং তাঁদের প্রেমকে পরিণয়ের দিকে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছিল৷ ১৯৯৯সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি বিয়েটা সেরেই ফেলেন দুই তারকা৷ আর নয় নয় করে ১৯ বছরও হয়ে গেল তাদের বিয়ে৷

কলকাতা ২৪x৭-এর পক্ষ থেকে বলিউড সিংঘম অজয়ের জন্য রইল একরাশ শুভেচ্ছা৷

Advertisement
---