শিক্ষক নিয়োগ মামলা: এসএসসির হলফনামা তলব হাইকোর্টের

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: তোপের মুখের এসএসসি৷ ৬ সপ্তাহের মধ্যেই স্কুল সার্ভিস কমিশনের হলফনামা তলব করল কলকাতা হাইকোর্ট৷ সোমবার বিচারপতি শেখর ববি সারাফের এজলাসে মামলার শুনানি চলে৷

এদিন অভিযোগকারীদের পক্ষের আইনজীবী আশিস কুমার চৌধুরী বেশ কিছু প্রশ্ন রাখেন আদালতের সামনে৷ তিনি প্রশ্ন করেন এসএসসি যে তালিকা প্রকাশ করেছে, তা মেধা তালিকা নাকি প্যানেল? যদি মেধা তালিকা হয় তাহলে প্রত্যেক প্রার্থীদের আলাদা আলাদা নাম এবং তাঁদের প্রাপ্ত নম্বর থাকার কথা৷ কিন্তু যদি প্যানেল হয় তা হলে মেধা তালিকা কোথায়?

এর প্রেক্ষিতে তিনি আরও বলেন, প্যানেল প্রকাশের পরে কাউন্সিলিং শুরু হবে৷ তাই মেধা তালিকা বা প্যানেল প্রকাশ করা প্রয়োজন৷ সে ব্যাপারে কমিশন গাফিলতি কেন করছে?

- Advertisement -

যদিও এর সপক্ষে স্কুল সার্ভিস কমিশনের আইনজীবী ডক্টর সুতনু পাত্র কোনও সদুত্তর আদালতে দিতে পারেননি। এরপর আইনজীবী আশিস কুমার চৌধুরী আদালতকে আরও জানান কমিশন যে তালিকা প্রকাশ করেছে, সেটা রুল ৮ সাব রুল ৩-এর অধীনে৷ এখানে তালিকাটি ১:১.৪ রেশিও ভায়োলেশন করেছে৷ কারণ বাংলা, ইতিহাস ও রাষ্ট্রবিজ্ঞানের ক্ষেত্রে যত জনের তালিকা হওয়ার দরকার, তার থেকে বেশি প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে কমিশন৷

এই বক্তব্যেরও কোনও জবাব কমিশন দিতে পারেনি৷ আগামী ৬ সপ্তাহের মধ্যে কমিশনের হলফনামা তলব করেছেন বিচারপতি শেখর ববি সরাফ।

মামলার বয়ান অনুযায়ী ২০১৮ সালের ১৬ই জুলাই সোমবার রাতে এসএসসির মেধা তালিকা প্রকাশে চুড়ান্ত বেনিয়মের অভিযোগে হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন চার চাকুরিপ্রার্থী। তাঁদের অভিযোগ ছিল চূড়ান্ত মেধা তালিকা প্রকাশ করেছে এসএসসি। যা রুল ১২ উপধারা ৬ এবং ৭ কে মান্য করা হয়নি। চূড়ান্ত মেধাতালিকায় প্রার্থীদের প্রাপ্ত নম্বর থাকা বাধ্যতামূলক। কিন্তু সেই নিয়ম মানেনি এসএসসি বলে অভিযোগ জানিয়ে ছিলেন পরীক্ষার্থীরা৷

তাঁদের অভিযোগ ছিল ২০১৩ সালের মে মাসে মেধা তালিকা প্রকাশ করেছিল এসএসসি। সেখানে এই নিয়মগুলো মানা হলেও, ২০১৮ সালে চূড়ান্ত মেধা তালিকায় সেই নিয়ম মানা হয়নি। কারণ, নিয়ম অনুযায়ী প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করতে হবে, লিখিত পরীক্ষা এবং তাদের যোগ্যতাভিত্তিক নাম্বার, বিএড ও পারসোনালিটি টেস্টের প্রাপ্ত নাম্বারের ভিত্তিতে।

কিন্তু গত ১৬ই জুলাইয়ে চূড়ান্ত মেধা তালিকা প্রকাশ করা হলেও, কোনও নিয়ম মানা হয়নি বলে অভিযোগে জানিয়ে ছিলেন মামলাকারীরা৷ এরপর সোমবার হাইকোর্টে এই মামলার শুনানিতে কমিশনকে হলফনামা জমা দিতে হাইকোর্ট৷

Advertisement ---
---
-----