বেঙ্গালুরুর মৃত বরুণের হৃদযন্ত্রে কলকাতায় বাঁচবেন দিলচাঁদ

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপনের উদ্যোগ কলকাতায়৷ পূর্ব ভারতের ইতিহাসে এটিই প্রথম  হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপনের ঘটনা।

ইতিমধ্যে বেলা ১১টা নাগাদ বেঙ্গালুরু থেকে বিশেষ বিমানে কলকাতা বিমানবন্দরে এসে পৌঁছল বরুণ ডিকের হৃদযন্ত্র৷ ইতিমধ্যে বিমানবন্দর থেকে ফর্টিস হাসপাতালে যাওয়ার সমগ্র রাস্তাকে গ্রিন করিডর করে দেওয়া হয়েছে কলকাতা পুলিশের তরফে৷

- Advertisement -

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, ফর্টিস হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন বছর চল্লিশের দিলচাঁদ সিংহ৷ গত তিন বছর ধরে হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপনের চেষ্টা করছিলেন তাঁর পরিজনেরা৷

গত রবিবার বেঙ্গালুরুতে দুর্ঘটনায় ব্রেন ডেথ হয় বরুণ ডিকের৷ এরপরই তাঁর হৃদযন্ত্র ঝাড়খণ্ডের দেওঘরের বাসিন্দা দিলচাঁদবাবুর দেহে প্রতিস্থাপনের উদ্যোগ নেওয়া হয়৷ দুই পরিবারের সম্মতিতে অবশেষে হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপন হতে চলেছে সোমবার৷

এই মুহুর্তে হাসপাতালের চিকিৎসকদের মধ্যে যুদ্ধকালীন তৎপরতা৷ জানা গিয়েছে, হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপন করতে ব্যাঙ্গালুরু থেকে দু’ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এসে পৌঁছেছেন৷ এছাড়াও ওই দলে রয়েছেন আরও পাঁচ জন চিকিৎসক৷

দিলচাঁদ

ইতিমধ্যেই শহরের ফর্টিস হাসপাতালে পৌঁছে গিয়েছে বেঙ্গালুরু থেকে নিয়ে আসা হৃদযন্ত্র।। এখন চলছে হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপনের চূড়ান্ত প্রস্তুতি৷ চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপন করতে আড়াই থেকে তিন ঘণ্টা সময় লাগে। হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপনের ঘটনা এর আগে ঘটেনি।

Advertisement
---