ক্রমশ বাড়ছে তেলের দাম! মোদীর মন্ত্রী জানেন কি বলছেন?

আহমেদাবাদ: দিনের পর দিন দাম বাড়ছে জ্বালানির৷ নাভিশ্বাস উঠছে সাধারণ মানুষের৷ তবে তাতে কেন্দ্রের বিশেষ হেলদোল রয়েছে বলে মনে হয়না৷ অন্তত পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধানের কথায় তা পরিষ্কার৷ রবিবার জ্বালানির দাম বৃদ্ধি প্রসঙ্গে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী৷ তিনি বলেন, দেশে জ্বালানির দামবৃদ্ধির বিষয় সাময়িক৷ এই নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই৷ একথা বলে দেশের মানুষকে আশ্বস্ত করতে চান তিনি৷

এদিন সুরাতে টেক্সটাইল অ্যান্ড প্লাস্টিক ইনভেসটরস কনক্লেভ ২০১৮ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন তিনি৷ সেখানেই একথা বলেন ধর্মেন্দ্র প্রধান৷ তাঁর মতে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে অহেতুক বিতর্ক তৈরি করছে কংগ্রেস৷ এই ইস্যুতে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ ভিত্তিহীন৷

এদিন তিনি বলেন, বর্তমান সরকার কংগ্রেসের রেখে যাওয়া বিপুল পরিমাণ ঋণ শোধ করছে৷ তিনি বলেন বিশ্ব বাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম ফের বাড়তে শুরু করেছে। পাশাপাশি, গত ৪ ফেব্রুয়ারি শেষ বার পেট্রোল-ডিজেলের দাম কমানোর পর থেকে ডলারের সাপেক্ষে টাকার দামকেও কিছুটা পড়তে দেখা গিয়েছে। আর এই দুই চাপ যুঝতেই এ বার পেট্রোল ও ডিজেলের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ তিনি আরও বলেন টাকার দামে ওঠা নামা চলছে৷ তবে গত কয়েকদিন ধরে রোজ পড়ছে টাকার দাম। মাসের শেষে একদিনে যেমন মার্কিন ডলারের চাহিদা বাড়ছে, অন্যদিকে অপরিশোধিত তেলের দাম বাড়ছে আন্তর্জাতিক বাজারে। স্বভাবতই ভারতের তেল পরিশোধনকারী সংস্থাকে আন্তর্জাতিক বাজার থেকে মার্কিন ডলারের বিনিময়েই কিনতে হচ্ছে তেল। যার প্রভাব পড়ছে দেশের তেলের বাজারে৷

- Advertisement -

রবিবারও দেশের সব মেট্রোপলিটন শহরে তেলের দামবৃদ্ধি হয়েছে৷ চারটি মেট্রো শহরে এদিন প্রতি লিটার পেট্রলের দাম ১১ পয়সা থেকে ১৮ পয়সা বৃদ্ধি হয়েছে৷ ডিজেলের দাম বেড়েছে লিটার পিছু ৩৪ পয়সা৷ রবিবার কলকাতায় পেট্রলের দাম লিটার প্রতি ১১ পয়সা বেড়েছে৷ শনিবার তেলের দাম ছিল ৮১.৬০ পয়সা৷ রবিবার এই দাম বেড়ে হয়েছে ৮১.৪৯ পয়সা৷ দাম বৃদ্ধি হয়েছে ডিজেলেরও৷ দিল্লিতে ডিজেলের দাম বেড়ে হয়েছে ৭০.৭৬ পয়সা৷ অন্যান্য তিনটি মেট্রো শহর মুম্বই, কলকাতা ও চেন্নাইতে ডিজেলের দাম বৃদ্ধি হয়েছে যথাক্রমে ৭৫.১২ পয়সা, ৭৩.৬১ পয়সা, ৭৪.৭৮ পয়সা৷ গত সপ্তাহ থেকেই উর্ধ্বমুখী তেলের দাম৷

Advertisement
-----