সামনে এল ভারত-মার্কিন মৈত্রী ‘মেল’

নয়াদিল্লি: ভারত-আমেরিকার সুসম্পর্ক নিয়ে বিগত ইউপিএ সরকারে বক্তব্য ছিল, এশিয়ায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সব থেকে কাছের দেশ ভারত। এমনকী ‘আমেরিকার দালাল’ আখ্যা দিয়ে ভারত-আমেরিকা পরমাণু চুক্তির বিরোধিতা করে বামফ্রন্টের সমর্থন তুলে নেওয়ার পরেও মনমোহন সরকার ঝুঁকে ছিল আমেরিকার দিকেই। ঘরে বাইরে সেই সময় সরকারের বার্তা ছিল, সাম্প্রতিককালের মার্কিন প্রশাসন ভারতবন্ধু। সে দাবি যে সত্যি, ভাঁওতা নয়, তার প্রমাণ মিলল মার্কিন নথিতে। মার্কিন বিদেশ মন্ত্রকের তরফে বৃহস্পতিবার ৪৩৬৮টি ই-মেল প্রকাশ করা হয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে ভারত সরকারকে লেখা ২০০টি ই-মেল।

এক-একটি ই-মেল লেখা হয়েছে, হয় প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং, নয়তো প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী এসএম কৃষ্ণ, কিংবা প্রাক্তন প্রতিরক্ষামন্ত্রী একে অ্যান্টনি অথবা পরিবেশমন্ত্রী জয়রাম রমেশকে। জয়রাম রমেশ একটি ই-মেলে হিলারি ক্লিনটনকে লিখেছেন, “কোপেনহেগেনে আপনার সঙ্গে দেখা হওয়াটা ছিল পরম সৌভাগ্যের। শেষ মুহূর্তে সেবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ওবামার সঙ্গেও কথা বলার সুযোগ হয়েছিল আমার। ওই ৭৫ মিনিটের ঐতিহাসিক আলাপচারিতা আমার আজও মনে রয়েছে।”

২০১০ সালের পাঠানো ওই ই-মেলের উত্তরে হিলারি ক্লিনটন বলেন, “শুভ নববর্ষ। ২০১০ সালের নতুন বছরের জন্য শুভেচ্ছা।” এ রকমই একাধিক ই-মেল মিলেছে, যাতে রয়েছে ভারত এবং আমেরিকার উষ্ণ সুসম্পর্কের একাধিক নিদর্শন।

----
-----