স্টাফ রিপোর্টার, হাওড়া: হাওড়ার জগাছার কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল বছর ২৪-এর উদীয়মান হকি খেলোয়াড়ের৷ সাঁতরাগাছির দক্ষিণ বাকসাড়ার বাসিন্দা ওই খেলোয়াড়ের নাম অগাস্তু টিক্কা৷

ছোটবেলা থেকেই হকি খেলতে খুব ভালোবাসত অগাস্তু। দিনমজুর পরিবারের ছেলে অগাস্তু হকি খেলাকেই আয়ের পথ হিসেবে বেছে নিয়েছিল। সোমবার সকালে সাঁতরাগাছির খেজুরতলায় কোনও ক্লাবের হয়ে ভাড়ায় খেলতে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয় অগাস্তু। সেদিন বাড়ি না ফেরায় মঙ্গলবার সকালে বাড়ি থেকে তার বোন ফোন করলে অগাস্তু জানায় খেলা চলছে পরদিন ফিরবে। পরে মাকে ফোন করে জানায় মঙ্গলবার রাতেই সে ফিরবে৷ কিন্তু বুধবার সকালেও সে বাড়ি না ফিরলে তাকে ফোন করা হলে তার ফোন বন্ধ ছিল বলে পরিবার সূত্রে জানা যায়।

বৃহস্পতিবার সকালে ওই খেলোয়াড়ের বন্ধুরা তার মামাকে ফোন করে জানায় অগাস্তুর দুর্ঘটনা ঘটেছে তাঁকে হাওড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়েই হাওড়া হাসপাতালে ছুটে যান তার পরিবারের লোকজন।
বৃহস্পতিবার সকালে দুর্ঘটনার পর তাকে হাওড়া জেলা হাসপাতালে ভর্ত্তি করা হয়েছিল। পরে রাতে সেখানেই তার মৃত্যু হয়। প্রতিভাময় হকি খেলোয়াড়ের অকাল মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তে শুক্রবার সকালে পুরো এলাকা শোকে ভেঙে পড়ে।

হাওড়া হকি অ্যাসোসিয়েশনের প্রশিক্ষক সন্দীপ সাহা জানান, গোলরক্ষক হিসেবে অগাস্তু টিক্কা খুবই ভালো খেলোয়াড় ছিল। আগামী নেহেরু কাপ খেলার জন্যে দলে নির্বাচিত হয়েছিল সে। আগামী দিনে বাংলা দলে খেলার সম্ভবনাও ছিল তার।

শুক্রবারে বিকেলে তার মরদেহ ময়নাতদন্তের পরে মাঠে নিয়ে আসা হয়। সেখানে তার মরদেহে মালা দিয়ে শ্রদ্ধা জানান বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক। এছাড়াও শেষ শ্রদ্ধা জানান হাওড়া স্পোর্টস অ্যাশোসিয়েশনের সভাপতি সহ অন্যান্যরা।

----
--