সরকারের অনুরোধ মেনে স্বল্প মেয়াদের ছুটি ঘোষণা করল বিভিন্ন বেসরকারি বিদ্যালয়

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: সরকারি বিদ্যালয়গুলিতে ২০-৩০ জুন পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার৷ বেসরকারি স্কুলগুলিতেও যাতে ছুটি দেওয়া হয় তার কথা বিবেচনা করতে মঙ্গলবার স্কুল শিক্ষা দফতর থেকে চিঠি পাঠানো হয়েছে সেন্ট্রাল বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন (সিবিএসই) ও ইন্ডিয়ান স্কুল সার্টিফিকেট এগজামিনেশন (আইসিএসই) বোর্ডের কাছে৷ তারপরই কলকাতার বিভিন্ন বেসরকারি বিদ্যালয় হাঁটল স্বল্প মেয়াদি ছুটির পথে৷

প্রবল গরম, সঙ্গে তাপপ্রবাহ৷ এই অস্বস্তিকর আবহাওয়া থেকে পড়ুয়াদের রক্ষা করতে টানা ১১ দিনের অতিরিক্ত ছুটি দেওয়া হয়েছে রাজ্যের সরকারি, সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত ও স্পন্সরড বিদ্যালয়গুলিতে৷ সোমবার এই ছুটি ঘোষণার সময়েই শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেছিলেন বেসরকারি বিদ্যালয়গুলিকেও ছুটি দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হবে৷ কিন্তু, রাত পার হয়ে গেলেও কোনও ছুটির কথা ঘোষণা করেনি বেসরকারি বিদ্যালয়গুলি৷

পড়ুন: অতিরিক্ত ছুটির বিজ্ঞপ্তি নিয়ে ধোঁয়াশা, বিভ্রান্ত শিক্ষক-শিক্ষিকারা

- Advertisement -

মঙ্গলবার ছুটির অনুরোধ করে সিবিএসই ও আইসিএসই বোর্ডকে চিঠি দেয় স্কুল শিক্ষা দফতর৷ তারপরই স্বল্প মেয়াদি ছুটি ঘোষণা করেছে কলকাতার বিভিন্ন বেসরকারি বিদ্যালয়৷ যারা এখনও ছুটি ঘোষণা করেনি তারা মঙ্গলবার অথবা বুধবারের মধ্যেই ছুটি নিয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে নেবে বলে জানা গিয়েছে৷ এ ছাড়া, যে সব বিদ্যালয় ছুটির পথে হাঁটছে না তারা আউটডোর অ্যাক্টিভিটি বন্ধ করে দিচ্ছে৷ বহু বিদ্যালয়ে এই বিষয়ে বৈঠক চলছে বলেও জানা গিয়েছে৷

কলকাতা–সহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় গত দু–তিনদিন ধরেই প্রবল তাপপ্রবাহ চলছে। তার সঙ্গে অস্বস্তিকর গরম। আগামী ৪৮ ঘণ্টা এই তাপপ্রবাহ চলবে বলেই খবর। এদিকে স্কুলগুলিতে গরমের ছুটি শেষ হয়ে যাওয়ায় গত কয়েক দিন ধরে ঘেমে–নেয়েই স্কুল করছে ছাত্রছাত্রীরা। অনেকে অসুস্থ হয়ে পড়ছে। সোমবার শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বেসরকারি স্কুল গুলিকেও রাজ্যসরকারের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হচ্ছে, তারাও যেন স্কুল ছুটির ব্যাপারে ভাবনা চিন্তা করেন৷

বেসরকারি বিদ্যালয়গুলির মধ্যে ক্যালকাটা গার্লস স্কুল ৫ দিনের ছুটি ঘোষণা করেছে৷ জিডি বিড়লা স্কুল ছুটি ঘোষণা করেছে ৩ দিনের৷ রামমোহন মিশন স্কুলে শুক্রবার পর্যন্ত হাফ ছুটি দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে৷ হেরিটেজ স্কুলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, নার্সারি থেকে প্রথম শ্রেণির জন্য বুধবার থেকে শুক্রবার পর্যন্ত ছুটি দেওয়া হয়েছে৷ আর দ্বিতীয় শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের দুপুর ১.১৫টায় ছুটি দিয়ে দেওয়া হবে৷

ডিপিএস রুবি পার্কের তরফে জানানো হয়েছে, গত সোমবারই গরমের ছুটির পর স্কুল খুলেছে৷ তাই জুনিয়র সেকশনকে বুধ ও বৃহস্পতিবার ছুটি দেওয়া হয়েছে৷ এই সেকশনের মধ্যে পড়ছে নার্সারি থেকে ক্লাস ওয়ান৷ এ ছাড়া, এই স্কুলে সব পড়ুয়ার আউটডোর অ্যাক্টিভিটি বন্ধ রাখা হয়েছে৷ ডিপিএস নর্থ কলকাতা শনি ও রবি মিলিয়ে মোট ৫ দিনের ছুটি ঘোষণা করেছে৷

অভিনব ভারতী হাই স্কুলের প্রিন্সিপাল জানিয়েছেন, মঙ্গলবার প্রি প্রাইমারি সেকশনে ছুটি দেওয়া হয়েছে৷ এই সেকশনে আপার কেজি, লোয়ার কেজি ও মন্তেসরি রয়েছে৷ তবে বুধবার স্কুল ইনসপেকশন থাকায় সব পড়ুয়াকে আসতেই হবে৷ তিনি জানিয়েছেন, বুধবারই বৈঠক করে ছুটির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে৷

সাউথ পয়েন্ট স্কুলে নার্সারি থেকে পঞ্চম শ্রেণির জন্য ২০-২২ জুন পর্যন্ত ছুটি দেওয়া হয়েছে৷ পাশাপাশি, ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণির জন্য ২০ ও ২১ জুন পর্যন্ত দু’দিনের ছুটি দেওয়া হয়েছে৷ স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আবহাওয়ার অবস্থা একই রকম থাকলে ছুটি বাড়ানোর কথা বিবেচনা করা হবে৷ শ্রী শিক্ষায়তন কলেজিয়েট স্কুলের প্রিন্সিপাল জানিয়েছেন, যেহেতু, গত সপ্তাহেই স্কুল খুলেছে, তাই ছুটি দেওয়া হয়নি৷ তবে, যাবতীয় আউটডোর অ্যাক্টিভিটি বন্ধ রাখা হচ্ছে৷

রাজ্য সরকারের অনুরোধকে মান্যতা দিয়ে ইতিমধ্যেই অতিরিক্ত ছুটির ঘোষণা করে দিয়েছে বিভিন্ন বেসরকারি স্কুল। সোমবার দিল্লি থেকে কলকাতায় পৌঁছেই শিক্ষামন্ত্রীকে ফোন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তাঁর সঙ্গে আলোচনা ভিত্তিতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ছুটি ঘোষণার আগেই বিভিন্ন শিক্ষক সংগঠন, ছাত্র সংগঠন এবং অভিভাবকরা গরমের ছুটি বাড়ানোর আবেদন করেছিল।‌

তবে, এটা শুধু পড়ুয়াদের ছুটি৷ শিক্ষকদের ছুটি নয়৷ সিবিএসই ও আইসিএসই বোর্ডকে পাঠানো আর একটি চিঠিতে তা স্পষ্ট করে দিয়েছে স্কুল শিক্ষা দফতর৷ যেখানে বলা হয়েছে, বিদ্যালয়গুলিতে ক্লাস বন্ধ থাকবে৷ স্কুল ছুটি থাকবে না৷ অর্থাৎ, প্রয়োজনে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বিদ্যালয়ে আসতে হবে৷

Advertisement ---
---
-----