বরদা স্টেশনে ট্রেনের ধাক্কায় আহত গৃহবধূ

স্টাফ রিপোর্টার, হলদিয়া: আপ হলদিয়া-হাওড়া লোকাল গতি কমিয়ে বরদা স্টেশনে ঢুকতেই ট্রেনের সঙ্গে ধাক্কা লেগে রেললাইনে পড়ে গুরুতর আহত হয় এক মহিলা৷

আরও পড়ুন- মোদী জামানার সবথেকে বড় দূর্নীতি ফাঁস করলেন বাংলার গেরুয়া নেতা

আহত মহিলা মহিষাদল থানা এলাকার গাজীপুরের রমা মণ্ডল (৩৫)৷ তবে সেই সময় প্ল্যাটফর্মে দাঁড়িয়ে থাকা অন্যান্য যাত্রীরা এই ঘটনাকে ‘আত্মহত্যার চেষ্টা’ বলে জানিয়েছেন। রবিবার সকালে এই ঘটনার পর থেকে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে৷

আরও পড়ুন- বাঁকুড়ায় তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিল এক ঝাঁক বাম নেতা-কর্মী

এদিকে খবর পেয়ে রেলওয়ে সিভিক ভলান্টিয়ারা এসে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে তড়িঘড়ি তমলুক জেলা হাসপাতালে পাঠায়। পরে পরিবারের লোকজন খবর পেয়ে হাসপাতালে পৌঁছে যান বলে জানা গিয়েছে। হাসপাতালের চিকিৎসা সূত্রে খবর, রমা মণ্ডলের মাথায় জোরালো চোট লাগে, হাতে রক্ত জমে যায় এবং হাঁটুতেও চোট পান তিনি।

আরও পড়ুন- কাটতে চলেছে মিনার্ভা থেকে আসা বাগান ফুটবলারদের ট্রান্সফার জট

অন্যদিকে, মহিলার পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, রমা মণ্ডলের বড় মেয়ে রথের দিন চৈতন্যপুর এলাকায় ভিড়ের মধ্যে স্ট্রোক হয়ে হলদিয়া মহকুমা হাসপাতালে আই.সি.ইউ-তে ভরতি রয়েছেন৷ রমাদেবী ওইদিন হাসপাতাল থেকেই ফিরছিলেন।

এক প্রতিবেশীর কথায়, পারিবারিক অশান্তির কারণে বেশ কিছুদিন থেকেই মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন রমা মণ্ডল। এর জেরেই আত্মহত্যা ঘটানোর সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকতে পারেন। মহিলার পরিবারের তরফে এই ঘটনাকে আত্মহত্যার চেষ্টা নয় বলেই দাবি করেছেন সদস্যরা। এদিন স্টেশন চত্বরে ঠিক কি হয়েছিল খতিয়ে দেখছে পুলিশ৷

---- -----