আম, সবেদায় আটকে মোদীর বুলেট ট্রেন প্রজেক্ট

নয়াদিল্লি: মোদীর বুলেট ট্রেন প্রজেক্ট ফের একবার সংশয়ের মুখে৷ আর পিছনে কারণ হিসেবে রয়েছে আম এবং সবেদা৷ যে জমিতে বুলেট ট্রেন ছোটার কথা সেখানে মহারাষ্ট্রের আম এবং সবেদা চাষিরা তাদের জমি দিতে নারাজ এবং এই কাজে তাদেরকে নাকি মদত দিচ্ছে স্থানীয় নেতারা৷

জানা গিয়েছে, মার্কেটে ভ্যালুর ২৫শতাংশ প্রিমিয়ামে চাষিদের থেকে জমি কেনার প্রস্তাব দিয়েছিল সরকার৷ দরাদরির ফলে নতুন রফায় এর সঙ্গে ৫লক্ষ টাকা অথবা জমির মূল্যের ৫০শতাংশ (দুটির মধ্যে যেটি বেশি) দেওয়া হবে৷

পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রীকে ‘ফিটনেস’ চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন প্রধানমন্ত্রী

- Advertisement -

গত এপ্রিলে, রেলওয়ে বোর্ডের চেয়ারম্যান অশ্বিনী লোহানি জানিয়েছিলেন, “২০২৩ সালের মধ্যে আমেদাবাদ-মু্ম্বই বুলেট ট্রেন সম্পূর্ণভাবে চালু হবে৷ আমরা পরিকল্পনা মতো এই প্রজেক্টে কাজ চলছে৷” এর জন্য রেল মন্ত্রক সাম্প্রতিকতম প্রযুক্তি ব্যবহার করছে৷ পূর্ব মধ্য রেলওয়ের জেনারেল ম্যানেজার এল সি ত্রিবেদী ও অন্য সিনিয়র অফিসারের সঙ্গে লোহানি এই নিয়ে সাক্ষাৎ করেন সে সময়৷

প্রসঙ্গত, গত বছর সেপ্টেম্বরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও জাপানের প্রতিনিধি সিনজো অ্যাবে এই বুলেট ট্রেন প্রজেক্টের সূচনা করেন৷ এর জন্য খরচ পড়ছে প্রায় ১.১০ লাখ কোটি টাকা৷ জাপান থেকে প্রায় ৮৮ হাজার কোটি টাকা ঋণ নেওয়া হয়৷ সুদ ০.১ শতাংশ৷ এই বুলেট ট্রেনগুলি প্রতি ঘণ্টায় ৩৫০ কিলোমিটার রাস্তা অতিক্রম করতে পারবে৷ মোট ১২টি স্টেশনে এটি স্টপেজ দেবে৷ সম্পূর্ণ ট্রেনে ব্যবহার করা হবে জাপানি টেকনোলজি৷ ১৯৬৫ থেকে জাপানে এই টেকনোলজির ট্রেন চলাচল করছে৷

Advertisement
----
-----