বাংলাদেশি নাগরিকের টাকা ভরতি ব্যাগ খুঁজে দিল ‘বন্ধু’ পুলিশ

স্টাফ রিপোর্টার, হাওড়া : বাংলাদেশ থেকে চিকিৎসার জন্য ভারতে আসা এক পরিবারকে হারিয়ে যাওয়া টাকা সহ ব্যাগ ফিরিয়ে দিল হাওড়া পুলিশ। পরিবারটি ভারতে এসেছিল বারো বছর বয়সী কন্যা সন্তানের ব্রেন টিউমারের অপারেশন করানোর জন্য। হাওড়া থেকে ট্রেন ধরার ট্যাক্সি চড়ে এসেছিলেন স্টেশনে। তখনই হারিয়ে যায় তাঁদের গুরুত্বপূর্ণ ব্যাগটি।

হাওড়ার গোলাবাড়ি থানার পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পরিবারটি ভারতে এসেছিল বারো বছর বয়সী কন্যা সন্তানের ব্রেন টিউমারের অপারেশন করানোর জন্য। যাবার কথা ছিল ভেলোরে। প্রথমে তারা ঢাকা থেকে বুধবার সন্ধ্যায় বাসে কলকাতা আসেন। কলকাতা থেকে হলুদ ট্যাক্সি ধরে হাওড়া আসেন ট্রেন ধরার জন্য। ট্যাক্সি থেকে নেমে স্টেশনে চলে আসবার পর মহ: নুরউদ্দিন আহমেদের খেয়াল হয় তিনি ব্যাগ ফেলে রেখে নেমে পড়েছেন। ততক্ষণে ট্যাক্সিও চলে গিয়েছিল।

এরপরেই তিনি পরিবার নিয়ে ছুটে আসেন গোলাবাড়ি থানায়। সব হারিয়ে তখন গোটা পরিবারেরই বিধ্বস্ত অবস্থা। মেয়ের চিকিৎসার খরচা সহহ পাসপোর্ট, দরকারি কাগজপত্র সবই ছিল ওই ব্যাগেই। থানার আইসি তথাগত পান্ডে জানিয়েছেন, তাঁরা প্রথমে হাওড়া স্টেশনের সিসিটিভি ফুটেজ চেক করেন। সেখানে ওই ট্যাক্সির ছবি জোগাড় হয়। এরপর গাড়ির নম্বর ধরে ট্যাক্সি মালিকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়।

- Advertisement -

এরপর কলকাতার চেতলা থেকে ব্যাগ নিয়ে গোলাবাড়ি থানায় আসেন ট্যাক্সি মালিক শেখ রাজা ও ট্যাক্সি চালক সমীর মিত্র। ব্যাগ ফিরে পান নুরউদ্দিন। বৃহস্পতিবার পুলিশ এদের পরিবারকে ভেলোরে যাবার ট্রেনের ব্যবস্থাও করে দিচ্ছে। রিজার্ভেশনের বন্দোবস্তও করে দেওয়া হচ্ছে।‘বন্ধু’ পুলিশের মানবিকতায় খুশি বাংলাদেশের ঢাকার পরিবার।

Advertisement ---
-----