হাওড়া: সোমবার শপথ নিলেন হাওড়া জিলা পরিষদের নব নির্বাচিত সদস্যরা৷ ৪০ জন সদস্যকে শপথ বাক্য পাঠ করান এডিএম (পঞ্চায়েত) শঙ্কর প্রসাদ পাল। শপথ পাঠের পর সর্বসম্মতিক্রমে জেলাপরিষদের সভাধিপতি ও সহকারী সভাধিপতি নির্বাচিত হয়। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায় ও অনগ্রসর শ্রেণী কল্যাণ মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়৷

আরও পড়ুন: Breaking: খুব শীঘ্রই পেট্রল পাওয়া যাবে ৫৫ টাকায়: গড়কড়ি

নব নির্বাচিত সদস্যদের নাম ঘোষণা করেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম৷ অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলাশাসক চৈতালি চক্রবর্তী, বিধায়ক শীতল সর্দার, ডাঃ নির্মল মাজি, গুলশন মল্লিক, অরুণাভ সেন প্রমুখ। সভাধিপতি নির্বাচিত হন কাবেরি দাস। সহকারী সভাধিপতি হন অজয় ভট্টাচার্য৷

এদিন অজয় ভট্টাচার্য বলেন, হাওড়া জেলা পরিষদের এবারের মিশন দারিদ্র দূরীকরণ এবং গ্রামোন্নয়ন। গত পাঁচ বছরে মুক্ত শৌচহীন জেলা হয়েছে হাওড়া। গ্রামের প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছেছে। এবারের মিশনে সহায় কর্মসূচিকে প্রাধান্য দিতে চায় জেলা পরিষদ৷

আরও পড়ুন: কৃষ্ণজন্মাষ্টমীর পর রাজ্য জুড়ে বলরাম জয়ন্তী পালন করবে বিজেপি

পাশাপাশি তিনি বলেন, এবার জেলা পরিষদ বিরোধী শূন্য হয়েছে। বিরোধী প্রার্থীরা কেউ নির্বাচিত হতে পারেননি। এতে কাজের প্রতি দায়বদ্ধতা আরও বেড়ে গিয়েছে। এই জেলা পরিষদের ওয়েবসাইট ওপেন থাকবে। সেখানে প্রতিটি কাজের হিসেব নথিভুক্ত থাকবে। যে কেউ প্রয়োজনে সেখানে তাঁদের মতামত বা পরামর্শ জানাতে পারবেন হাওড়া জেলাপরিষদকে৷

এদিন জেলাপরিষদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বপ্নকে সার্থক করে তুলতে আগামী দিনে গ্রামোন্নয়নে বিশেষ নজর দেওয়া হবে৷ এর পাশাপাশি তাদের লক্ষ্য, সহায় কর্মসূচিকে প্রাধান্য দিয়ে দারিদ্র থেকে মুক্তি।

আরও পড়ুন: আপত্তিকর নাচ, ইরানে গ্রেফতার দুই তারকা

সোমবার জেলাপরিষদের অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন নির্বাচিত সভাধিপতি কাবেরি দাস। তিনি বলেন, আগামী দিনে সকলকে সঙ্গে নিয়েই চলতে চাই। একসঙ্গে কাজ করতে চাই। দারিদ্র দূরীকরণ এবং গ্রামোন্নয়নকে অগ্রাধিকার দিতে চাই।

https://youtu.be/Nl8UVocq-UY

----
--