লোকসভায় অধীরের বিরুদ্ধেও লড়তে প্রস্তুত হুমায়ুন

সৌমিক কর্মকার, কলকাতা: বরাবরের কংগ্রেস দুর্গ মুর্শিদাবাদ এখন ভেঙে পড়ছে তৃণমূলী আক্রমণে৷ সাম্প্রতিক পঞ্চায়েত নির্বাচনের ত্রিস্তরে তৃণমূল কংগ্রেসের সাফল্য চোখে পড়ার মতো৷ এছাড়া কংগ্রেস বিধায়করাও একে একে ভিড় জমাচ্ছেন ঘাসফুল শিবিরে৷

আর এই পরিস্থিতিতেই কার্যত উলটোস্রোতে গা ভাসাতে চলেছেন হুমায়ুন কবীর৷ রেজিনগরের প্রাক্তন বিধায়ক যোগ দিতে চলেছেন বিজেপিতে৷ তার পর মুর্শিদাবাদ জেলায় বিজেপি শক্তি বৃদ্ধিতে সর্বশক্তি দিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়তে প্রস্তুত তিনি৷ প্রয়োজনে লড়তেও রাজি অধীর চৌধুরীর বিরুদ্ধে৷

আরও পড়ুন: সিপিএমের আমলেও পুলিশ এমন সন্ত্রাস করেনি : হুমায়ুন কবীর

- Advertisement -

সম্প্রতি kolkata24x7-কে তিনি বলেছেন, ‘‘দলের সর্বভারতীয় নেতৃত্ব যেখানে লড়তে বলবে সেখানেই লড়ব৷ আমার আপত্তি করার কোনও প্রশ্নই নেই৷’’ মুর্শিদাবাদে তিনটি লোকসভা আসন৷ মুর্শিদাবাদ, জঙ্গিপুর ও বহরমপুর৷ বিজেপির একটি সূত্র থেকে জানা গিয়েছে, তাঁকে আগামী বছর লোকসভা নির্বাচনে মুর্শিদাবাদ কেন্দ্র থেকে টিকিট দেওয়া হবে৷

তবে বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকেও তাঁর লড়তে কোনও অসুবিধা নেই বলেও স্পষ্ট করে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভার প্রাক্তন এই সদস্য৷ আর সেই লড়াই হলে তিনিই জিতবেন বলেও আশাবাদী হুমায়ুন কবীর৷

আরও পড়ুন: অমিত শাহর উপস্থিতিতেই বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন মমতার প্রাক্তন মন্ত্রী

কেন তিনি এমন মনে করছেন, তাও রীতিমতো পরিসংখ্যান তুলে বোঝানোর চেষ্টা করেছেন৷ তাঁর ব্যাখ্যা, ২০১৬ সালে তিনি নির্দল প্রার্থী হিসেবে রেজিনগর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে প্রায় ৭৪ হাজার ভোট পেয়েছিলেন৷ কয়েকশো ভোটের ব্যবধানে তৃণমূলের কাছে হারতে হয়েছিল তাঁকে৷ কিন্তু কংগ্রেস, তৃণমূল, সিপিএমের বিরুদ্ধে সেই লড়াইয়ের সুফল লোকসভাতেও পাওয়া যাবে বলে তাঁর আশা৷

যদিও রেজিনগরের ফল একটি বিধানসভার প্রেক্ষিতে৷ বহরমপুর লোকসভায় আরও ছ’টি বিধানসভা রয়েছে৷ প্রতিটি কংগ্রেস এখনও বেশ শক্তিশালী৷ তৃণমূলও তাদের সঙ্গে সমানে টক্কর দিচ্ছে৷ তার পরও হুমায়ুন কি বিজেপির হয়ে বাজি জিততে পারবেন?

আরও পড়ুন: সভাপতি বদলের জল্পনাতেই প্রকাশ্যে বিজেপির অন্তর্কলহ

উত্তরে আত্মবিশ্বাসী শোনায় হুমায়ুনের গলা৷ তিনি রেজিনগরের লড়াইকে সেমিফাইনাল হিসেবেই ধরছেন৷ সেই লড়াইয়ে হারলেও সমানে সমানে লড়াই করেছেন তিনি৷ এরই প্রতিফলন দেখা যাবে ফাইনালে৷ আর লোকসভার লড়াইয়ের সেই ফাইনাল হাসতে হাসতে জিতবেন বলেও মনে করছেন হুমায়ুন৷

Advertisement ---
---
-----