বিষ্ণুর অস্ত্রের মতো দেখতে সুপারসনিক মিসাইল গোপনে তৈরি করছে ডিআরডিও

চেন্নাই: আর মাত্র কয়েক দিন, তারপরেই ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের ঝুলিতে থাকবে সুপারসনিক মিসাইল। শব্দের থেকে তিনগুণ গতিতে চলতে পারা এই সুপারসনিক মিসাইল দেখতে অনেকটা বিষ্ণু চক্রের মতো। প্রচণ্ড বিধ্বংসী ক্ষমতাসম্পন্ন এই সুপারসনিক মিসাইলেই আগামী দিনে ভারতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রকের সেরা বাজি হতে চলে বলে মনে করা হচ্ছে।

পড়ুন আরও- অ্যান্টি মিসাইল গ্রুপের অংশ হচ্ছে ভারত

ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের এই নতুন গবেষণার কথা ফাঁস করে দিয়েছেন ডিআরডিওর এক প্রাক্তনী। তাঁর কথায়, “ভারতীয় প্রতিরক্ষা গবেষণা আপাতত মগ্ন রয়েছে সুপারসনিক মিসাইল নিয়ে। গবেষণার ফলাফল সাফল্যের মুখ দেখার অপেক্ষায়। এই স্বপ্ন যদি সত্যি হয়, তাহলে প্রতিপক্ষের পিলে চমকে যাবে।” কী এমন ক্ষমতা এই সুপারসনিক মিসাইলের? পিল্লাই নিজেই জানিয়েছে, পৃথিবীর মধ্যে ভারতই প্রথম দেশ হবে যার হাতে থাকবে এই সুপারসনিক মিসাইল। মার্কিন ক্রুজ মিসাইলের সঙ্গেও সমানে পাল্লা দিতে সক্ষম এই সুপারসনিক। ভূমি থেকে শত্রু দেশের যে কোনও ঘাঁটি লক্ষ্য করে গুড়িয়ে দিতে ওস্তাদ এই মিসাইল।

- Advertisement -

পড়ুন আর- মিসাইল প্রুফ দেশ হওয়ার পথে ভারত

ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে এ ব্যাপারে এখনই মুখ খোলা না হলেও মনে করা হচ্ছে আগামী বছরের জানুয়ারির মধ্যেই ভারতীয় অস্ত্রভাণ্ডারে শোভা পাবে সুপারসনিক এই ক্ষেপণাস্ত্র। সেইসঙ্গে পাকিস্তান ও চিন যেভাবে ভারতকে পদে পদে চ্যালেঞ্জ জানাচ্ছে, তাতে ভারতের হাতে এই মোক্ষম অস্ত্র দেখে তারা অনেকটাই দমে যাবে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

পড়ুন আরও- শতাধিক রাফায়েল চায় ভারত

Advertisement
---