বাঁচার ইচ্ছা নেই! সুনন্দা পুস্করের শেষ ই-মেলে বিস্ফোরক তথ্য

নয়াদিল্লি: ঘোর অস্বস্তি কংগ্রেস সাংসদ শশা থারুরের জন্য৷ তাঁর মৃতা স্ত্রী সুনন্দা পুস্করের শেষ ই-মেলের বয়ান অন্তত তেমনই ইঙ্গিত করছে৷ দিল্লি হাইকোর্টে তাঁর বিরুদ্ধে সোমবার তিন হাজার পাতার চার্জশিট জমা দিল দিল্লি পুলিশ।

সেই চার্জশিটে একটি মেলের উল্লেখ করা হয়েছে৷ যে মেল লিখেছিলেন সুনন্দা পুস্কর নিজে৷ মেলটি গিয়েছিল শশী থারুরের কাছে৷ তাতে লেখা ছিল, আমার বেঁচে থাকার ইচ্ছা নেই৷ মরতে চাই৷ এই মেলটিকেই হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করতে চাইছে দিল্লি পুলিশ৷

মেলের বয়ান ঘেঁটে দিল্লি পুলিশের অভিযোগ স্ত্রী সুনন্দা পুষ্করকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দিয়েছিলেন কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর। শশী থারুরকে ইমেলে লেখা সুনন্দা পুস্করের এই ছোট্ট চিঠিকে মৃত্যুকালীন জবানবন্দী হিসাবে আদালতে তুলে ধরা হয়েছে। যার ফলে বেশ চাপে পড়ে গিয়েছেন কংগ্রেস সাংসদ বলে মনে করা হচ্ছে।

- Advertisement -

গত ১৭ জানুয়ারি সুনন্দা পুষ্কর আত্মহত্যা করেছিলেন। তখন প্রকাশ্যে এসেছিল পাকিস্তানের এক মহিলা সাংবাদিকের সঙ্গে শশী থারুরের গোপন সম্পর্কের কথা।

তখনই প্রকাশ্যে এসেছিল সুনন্দার ফোন বেশ কিছুদিন ধরে এড়িয়ে যাচ্ছিলেন শশী। এমনকী সোশ্যাল মিডিয়ায় সুনন্দার মেসেজেরও কোনও উত্তর দিচ্ছিলেন না কংগ্রেস সাংসদ। এই সমস্ত তথ্যই চার্জশিটে তুলে ধরা হয়েছে। ‌‌
আদালতে পেশ করা চার্জশিট থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ৮ জানুয়ারি এই ইমেলটি সুনন্দা পুষ্কর করেছিলেন শশী থারুরকে। সুনন্দাকে একটি বিলাসবহুল হোটেল থেকে তাঁর নিথর দেহ উদ্ধার করেছিল দিল্লি পুলিস। যেখান থেকে ২৭টি ঘুমের ওষুধ পাওয়া গিয়েছিল।

Advertisement ---
-----