‘পাকিস্তানকে জল না দিলে, ভারতে রক্তগঙ্গা বইয়ে দেব’

লাহোর: ভারতে ঢুকে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালিয়েছে পাক জঙ্গিরা। ৩০ জন সেনাকে হত্যা করা হয়েছে। শুক্রবারই এমন মন্তব্য করে শিরোনামে এসেছিলেন জামাত-উদ-দাওয়া প্রধান হাফিজ সঈদ। এই মন্তব্যের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ফের ভারতের বিস্ফোরক মন্তব্য এই জঙ্গিনেতার। তার কথায়, ‘পাকিস্তানের জল বন্ধ করে দেওয়া হলে ভারতে রক্তগঙ্গা বইয়ে দেব।’

আরও পড়ুন: শেষ ফোনে হাফিজকে ভারতের বিরুদ্ধে লড়ার বার্তা দিয়েছিল বুরহান

লাহোরের ফয়সালাবাদে এক জনসভায় ভাষণ দিচ্ছিলেন সঈদ। সেখানে তিনি বলেন, ভারতীয় সেনা জওয়ানরা প্রায় ৬৫০, ০০০ কাশ্মীরি মুসলিমকে হত্যা করেছে। এরপরই আখনুর, উরি এবং অন্যান্য জায়গায় পাল্টা জবাব দিয়েছে কাশ্মীরি মুজাহিদিনরা। উর্দুতে তাকে বলতে শোনা গিয়েছে, দু’দিন আগেই ভারতীয় সেনার আখনুর সেক্টরে ঢুকে ১০টি ঘাঁটি ও তিনজন সেনাকে খতম করে দিয়ে এসেছে তিনজন৷

- Advertisement -

তিনি আরও বলেন, কাশ্মীরি মুজাহিদিনরা ভারতকে ধীরে ধীরে ধ্বংস করছে, এবং নয়াদিল্লি বাস্তবে সেটা আটকাতে কিছুই করতে পারবে না। এবং এই লড়াইয়ে তিনি নাকি একলা নন, তাঁর সঙ্গে রয়েছেন বালোচ সহ গোটা পাকিস্তানবাসী। হাফিজের দাবি, বালোচ নেতা শাহজাহান বুগতি তাঁর সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন, এবং জানিয়েছেন তিনি কাশ্মীরিদের জেহাদ আন্দোলনে তাঁদের পাশে রয়েছেন। বুগতির দাবি বালোচিস্তানের প্রায় পঞ্চাশ হাজার তরুণ হাফিজের ডাকের অপেক্ষায় রয়েছে। তাঁর ডাক পেলে কাশ্মীরি মুজাহিদিনদের লড়াই যোগ দিতে প্রস্তুত সেইসব তরুণরা।

আরও পড়ুন: ফের শরিফ সরকারের বিরুদ্ধে সুর চড়াল হাফিজ সঈদ

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকেও কটাক্ষ করতে সোনা গিয়েছে জামাত-উল-দোয়াহার প্রধানের মুখ থেকে৷ সঈদ জানিয়েছে, ভারতীয় প্যারা-কমান্ড বাহিনীর করা সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়ে একটি মন গড়া সিনেমা তৈরি করেছে প্রধানমন্ত্রী মোদী৷ওই জনসভায় হাফিজ বলেন, কাশ্মীরিদের স্বাধীনতা আন্দোলনে তিনি তাঁদের পাশে রয়েছেন, কারণ, কাশ্মীর ছাড়া পাকিস্তান অসম্পূর্ণ।

Advertisement ---
-----