অনলাইনে হতাশা মুক্তির উপায় এবার হাতের মুঠোয়

কানপুর: প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে হতাশা মুক্তির উপায় নিয়ে এল আইআইটি কানপুরের ছাত্র-ছাত্রীরা৷ TreadWill, একটি অনলাইন টুল৷ শুধুমাত্র হতাশা নয়, মানসিক সুস্থতা প্রদান করাই হবে টুলটির মূল লক্ষ্য৷ টুলটি নিয়ে মন্তব্য করেন আইআইটির বায়োলজিক্যাল সায়েন্স এবং বায়োইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক নিতিন গুপ্তা৷ তিনি বলেন, ‘অনলাইন অনুশীলন, প্রশ্নমালা এবং আকর্ষণীয় গেম খেলার মাধ্যমে মানসিক চাপ, অবসন্নতা দূর করতে সাহায্য করবে TreadWill ওয়েবসাইটটি৷’

তিনি যোগ করেন, মানুষ হতাশায় ভোগেন৷ যার মধ্যে নিজেকে গুটিয়ে নেওয়া এবং কাজে অনিচ্ছা প্রকাশ ইত্যাদি লক্ষণ অন্যতম৷ তারা সাইটটি ব্যবহার করে উপকৃত হতে পারেন৷ বিষয়টিতে মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডঃ অলোক বাজপায়ী বলেন, ‘কম্পিউটার সায়েন্স, ইঞ্জিনিয়ায়িং এবং মন বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীদের মিলিত সহযোগিতায় টুলটি তৈরি করা সম্ভব হয়েছে৷’

কগনেটিভ বিহেভিয়ারাল থেরাপিকে (সিবিটি) ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে সাইটটি, যেটি হতাশার লক্ষণগুলিকে অনেকাংশে কমিয়ে আনবে৷ এমনই মনে করছেন গুপ্তা৷ পরীক্ষায় প্রমাণিত মন পরিবর্তন, অস্থিরতা ও মানসিক অসুস্থতাকে কম করেছে সিবিটি৷ সাধারণ মানুষের কথা মাথায় রেখেই সাইটটিতে ব্যবহার করা হয়েছে সহজ বোধগম্য ভাষা৷ যাতে ব্যবহারকারীদের কাছে ভাষা কোন প্রতিবন্ধকতার কারণ হয়ে না দাঁড়ায়৷

অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে গিয়ে গুপ্তা জানান, অস্থিরতা, মানসিক চাপ, হতাশা ইত্যাদি নিয়ে বহু বছর গবেষণা করছি৷ সহজ প্রশ্নোত্তরের মাধ্যমে প্রত্যেক ব্যবহারকারীর মধ্যে পার্থক্য নির্ধারণে সক্ষম হবে অনলাইন টুলটি৷ যা পরবর্তীক্ষেত্রে প্রক্রিয়াটিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে৷ ব্যাক্তিগতভাবে এসএমএস পাঠিয়ে সংস্থা ইউজারদের একটি নির্দিষ্ট পদ্ধতিকে শেষ পর্যন্ত ব্যবহারের অনুরোধ করবে৷

ভবিষ্যতে বিভিন্ন ভাষার সংযোজনের বিষয়েও জানায় সংস্থা৷ এছাড়া, অনলাইন ট্রেনিংয়ের বিশেষ ব্যবস্থাও করা হবে৷ কোর্স শেষ হওয়ার ৯০ দিন পর ই-মেলের মাধ্যমে যাচাই করা হবে ব্যবহারকারী কতখানি উপকৃত৷ ওয়েবসাইটটির ব্যাপারে ব্যবহারকারী যদি নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেন সেক্ষেত্রে, সেই প্রতিক্রিয়াটিই প্রোগ্রামটিকে আরও উন্নতভাবে তৈরি করতে সংস্থাকে সাহায্য করবে৷

Advertisement
---
-----