ভয়াল রূপ ধারণ করছে গঙ্গা, সতর্কতা ১২ রাজ্যে

নয়াদিল্লি: দেশের ১২ টি রাজ্যে ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণের সতর্কতা জারি করল কেন্দ্রীয় হাওয়া অফিস। ইতিমধ্যেই উত্তরপ্রদেশ ও রাজস্থানের বেশ কিছু অংশ জলের তলায়। বারানসির কাছে গঙ্গা ভয়াল রূপ ধারণ করেছে। বিপদ সীমা লঙ্ঘন করেছে জলস্তর। যার জেরে ভূস্বর্গের আবহাওয়াও ভয়াবহ।

পূর্ব রাজস্থানের পাশাপাশি উত্তর-পশ্চিম মধ্যপ্রদেশের পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে একটি গভীর নিম্নচাপের সৃষ্টি হয়েছে। প্রায় ৪.৫ কিলোমিটার বেগে এই নিম্নচাপ ধেয়ে আসছে এমনটাই খবর। ১১ই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সেখানে স্থায়ী হবে এই নিম্নচাপ এরপর উত্তরপূর্বের দিকে ১৪ই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এর প্রভাব পড়বে।

এর পাশাপাশি সিকিম,অরুনাচল প্রদেশ, অসম, মেঘালয়ে আগামী ১২ তারিখ পর্যন্ত ভারি বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে। নাগাল্যান্ড,মণিপুর,মিজোরাম,ত্রিপুরা আগামীকাল থেকে খানিকটা হলেও বৃষ্টির হাত থেকে রক্ষা পেতে পারে। আগামীকাল ও পরশু তামিলনাডু ও কর্ণাটকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

এর পাশাপাশি এরাজ্যেও আগামী ২৪ ঘণ্টায় ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে উত্তরবঙ্গের পাঁচ জেলায়। ইতিমধ্যেই আলিপুর আবহাওয়া দফতর জেলাগুলিতে কমলা সতর্কতা জারি করেছে। তবে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে স্থানীয় মেঘ জমে বৃষ্টি হতে পারে।

দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পঙ, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার-সহ সিকিমে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, মৌসুমী অক্ষরেখা গত দুই সপ্তাহে দক্ষিণবঙ্গের উপকূলীয় জেলার উপর অবস্থান করছিল। কলকাতার উপরেও মঙ্গলবার এবং বুধবার ছিল মৌসুমী অক্ষরেখা৷ কিন্তু বর্তমানে সেটি উত্তরবঙ্গের উপর দিয়ে গিয়েছে। পাশাপাশি উত্তর বঙ্গোপসাগর থেকে প্রচুর জ্বলীয় বাষ্প প্রবেশ করছে৷ এর জেরেই ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হবে ওই পাঁচ জেলায়।

সব মিলিয়ে এখনই নিম্নচাপের হাত থেকে রক্ষা পাবে না দেশবাসী, এমনটাই আশঙ্কা।