পাকিস্তান: ইমরান এগিয়ে কিন্তু কুর্সিতে ত্রিশঙ্কু ছায়া

ইসলামাবাদ:  পাক সংবাদ মাধ্যমের হিসেব বলছে (রাত ২.২৬ মিনিট) পিটিআই এগিয়ে ১০৯টি আসনে৷ পিএমএল(এন) ৬৯টি আসনে, পিপিপি এগিয়ে ৩৮টি আসনে৷ তবে সব থেকে তাৎপর্যপূর্ণ হতে চলেছে অন্যান্য দল ও নির্দলদের অবস্থান৷ অন্তত ৫০টির বেশি আসনে এগিয়ে বিভিন্ন দল৷

(UPDATE 02:40 am)

পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচনের ফলাফল গণনা চলছে৷ একাধিক পাক সংবাদ মাধ্যমের খবর, প্রবল শক্তি নিয়ে জাতীয়স্তরে বৃহত্তম দল হিসেবে উঠে আসছে পিটিআই৷ দলের নেতা ইমরান খানকে সম্ভাব্য প্রধানমন্ত্রী ধরা হয়েছে৷ কিন্তু বৃহত্তম দল হলেও কি ইমরান পারবেন কুর্সিতে বসতে ? ফলাফলের ট্রেন্ড বলছে অন্যান্য দল এবং নির্দলেরা যেভাবে ৫০টির বেশি আসেন এগিয়ে তাতে ক্রমশ কমছে সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় বসার সম্ভাবনা৷

- Advertisement -

ইমরান খানের পিটিআই অন্তত ৮০টি আসনে এগিয়ে৷ খোদ রাজধানী ইসলামাবাদেই সর্বশেষ প্রধানমন্ত্রীর কুর্সি সামলানো আসিফ খাকান আব্বাসি পিছিয়ে৷ আর ক্ষমতাসীন দল পিএমএল(এন) ৫০টির বেশি আসন নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে লড়াই করছে৷ তৃতীয় স্থানে রয়েছেন বেনজির ভুট্টো পুত্র বিলাবল জারদারির দল পিপিপি৷ তবে সিন্ধ প্রদেশে তারা বড়সড় শক্তি হয়েই থাকল৷ এখানেই লড়াইটা চরমে৷ অন্যান্যদের সঙ্গে জোটের পথ ক্রমশ বড় হতে শুরু করেছে৷

পাক নির্বাচনে এত বড় মাপের শক্তি নিয়ে অন্যান্যরা সাম্প্রতিক সময়ে উঠে আসেনি৷ এই দলগুলির মধ্যে রয়েছে, মুসলিম ধর্মভিত্তিক কিছু দল৷ একইভাবে নির্দলরাও লড়াইয়ে প্রভাব ফেলতে শুরু করেছে৷

(UPDATE 11:22 pm)

প্রাথমিক পরিসংখ্যান: শুরু হয়ে গিয়েছে ভোট গণনা৷ পাকিস্তানের কুর্সিতে কে বসতে চলেছেন তার ইঙ্গিত মিলবে শেষ রাতেই৷ এখনও পর্যন্ত যা হিসেব মিলছে, তাতে ১৪১টি আসনের সর্ববৃহৎ পঞ্জাব প্রদেশের দখল নিতে প্রবল লড়াই চলছে৷ পাক সংবাদ মাধ্যমের খবর, ক্ষমতাসীন পিএমএল(এন) অর্থাৎ নওয়াজ শরিফ ধাক্কা খাচ্ছে৷ অন্তত ৭০টি আসনে এগিয়ে ইমরান খানের দল পিটিআই৷ ৫৬টি আসনে এগিয়ে পিএমএল(এন)৷ ২৮টি আসনে এগিয়ে পিপিপি৷ প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোর পুত্র বিলাবল জারদারি নিজেও এগিয়ে আছেন৷

জঙ্গি সংগঠন তথা মুম্বই হামলার মাস্টার মাইন্ড হাফিজ সঈদের দল আল্লাহ হো তেহরিক তেমন কিছু করতে পারেনি৷

মধ্যরাতেই পরিস্কার হয়ে যাবে ফলাফল। ইতিমধ্যেই পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনের গণনা শুরু হয়ে গিয়েছে।

২৭২ টি সিটের মধ্যে ৬৯ টি সিটে এগিয়ে রয়েছে ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ। ৪৯টি আসনে এগিয়ে নওয়াজ শরিফের দল। আর পিপিপি এগিয়ে আছে ৩০টি আসনে।

কোনও দলের সরকার গঠনের জন্য কমপক্ষে ১৩৭ আসনে জয় লাভ করতেই হবে৷ জাতীয় সংসদে আসন ২৭২।

পাকিস্তানের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ পঞ্জাব প্রদেশ। সেখানে ৩৮টি আসনে এগিয়ে পিটিআই। আর ২৬টি আসনে নওয়াজ শরিফের দল পিএমএল-এন।

পিছিয়ে পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী শাহিদ খাক্কান আব্বাসি। NA-57 কেন্দ্রে তিনি পেয়েছেন ৪,৬৭৭ টি ভোট। একই কেন্দ্রে এগিয়ে আছেন পিটিআই প্রার্থী সদাকত আব্বাসি। তাঁর প্রাপ্ত ভোট ৬৩৯৪ টি ভোট।

Advertisement
---