সঠিক পদ্ধতিতে ভোট হলে ইমরান প্রধানমন্ত্রী হত না: পিএমএলএন

লাহোর: জনাদেশ নেই ইমরান খানের কাছে৷ মানুষ তাঁকে সমর্থন করেনি৷ এমনই দাবি পাকিস্তান মুসলিম লিগ নওয়াজের নেতা খোওয়াজা সাদ রফিকের৷ তাঁর মতে মানুষ ইমরানকে নির্বাচিত করেননি৷ কারণ সঠিক গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে ভোটই হয়নি৷

তাঁর কথায় ইমরান ‘আ ম্যান উইথ নো ম্যানডেট’! রফিক বলছেন যদি সঠিকভাবে ভোট করানো হত, তবে কখনই ক্ষমতায় আসতে পারতেন না ইমরান খান৷ মানুষ ভোট দিতে পারেনি৷ এক শক্তি গোটা নির্বাচন প্রক্রিয়া নিয়ন্ত্রণ করেছে৷

বিশেষজ্ঞদের মতে রফিক এখানে সেনাবাহিনীর দিকেই ইঙ্গিত করেছেন৷ আগেই বিশেষজ্ঞরা বলেছিলেন, ইমরানকেই ক্ষমতায় আনবে সেনাবাহিনী। সেনাবাহিনীর তুলে দেওয়া বলেই ছক্কা হাঁকাবেন ইমরান। যদিও বিদেশ থেকে ফিরে এসে কন্যাসহ নওয়াজ শরিফের কারাবাসের ঘটনায় পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের পক্ষে সহানুভূতি ভোট কিছুটা বাড়তে পারে।

- Advertisement DFP -

পড়ুন: স্বাধীনতা দিবসের আগেই শপথ নেবেন ইমরান খান

একথা প্রচলিত পাকিস্তানে যা খুশি তাই করা বা আগাগোড়া চাল উলটে দেওয়া সেনাবাহিনীর ইচ্ছের ব্যাপার। তবে প্রশ্ন উঠছে৷ একেবারে বিনা স্বার্থে পাকিস্তানের কোনও দলকেই সমর্থন করেনি সেনা৷ তাহলে ইমরানের মাথায় হাত রাখার স্বার্থ কী?

বিশ্লেষকরা বলছেন, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোর পাকিস্তান পিপলস পার্টি বা নওয়াজের পিএমএল-এনের মতো প্রভাবশালী দলগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করতে সেনাবাহিনীকে অনেকটা বেগ পেতে হয়। সেখানে প্রায় নতুন দল ইমরানের পাকিস্তান তেহরিক ই ইনসাফকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে খুব অসুবিধা হবে না সেনার৷ ফলে ইমরানকে বেছে নেওয়া৷

রফিক বলেছেন তাঁর নিজের কেন্দ্র থেকে ১৩ হাজার ভোট বাতিল করা হয়েছে৷ জোর করে এই সব ভোট বাতিল হয়েছে৷ ইচ্ছাকৃতভাবে হারানো হয়েছে অন্যান্য প্রার্থীদের৷

Advertisement
----
-----