সিধুকে ‘শান্তির দূত’ বলে ধন্যবাদ দিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী

ইসলামাবাদ: পাকিস্তানে গিয়ে পাক সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়াকে আলিঙ্গন করেন নভজ্যোত সিং সিধু। এরপরই থেকে চরম বিতর্কের মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে। তাঁর কোনও ব্যাখ্যাতেই আমল দিতে রাজি নয় রাজনৈতিক মহল। সেই আগুনেই এবার ঘি ঢাললেন খোদ পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সিধুকে ‘শান্তির দূত’ আখ্যা দিয়ে ধন্যবাদ জানালেন ইমরান।

মঙ্গলবার ট্যুইট করেন ইমরান খান। লেখেন, ”ভারতে যারা সিধুকে নিয়ে বিতর্ক তৈরি করছে, তারা উপমহাদেশে শান্তিপ্রক্রিয়া ব্যহত করছে। শান্তি ছাড়া কোনও উন্নয়ন সম্ভব নয়।”

আগেই সিধু তাঁর পাকিস্তান সফরের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে বলেছেন, ”এটা কোনও রাজনৈতিক সফর নয়।” তিনি নিছকই একজন পুরনো বন্ধুর আমন্ত্রণে পাকিস্তানে গিয়েছিলেন। নরেন্দ্র মোদীর উদাহরণ টেনে তিনি বলেছেন, ”নরেন্দ্র মোদীও আচমকা পাকিস্তানে গিয়ে নওয়াজ শরিফের সঙ্গে দেখা করেছিলেন, তাঁকে নিয়ে কেউ প্রশ্ন তোলেনি। তিনি জানান, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী বাসে চেপে লাহোর যেতে পারেন৷ বর্তমান প্রধানমন্ত্রী কাউকে কিছু না জানিয়ে পাকিস্তান গিয়ে নওয়াজ শরিফকে আলিঙ্গন করে আসতে পারেন৷ তখন তো কারোর সাহস হয় না মোদীকে প্রশ্ন করার৷

- Advertisement -

শুধু পাক সেনাপ্রধান জাভেদ কামাল বাজওয়াকে আলিঙ্গন করেই নয় ফ্যাসাদে পড়েননি সিধু৷ ইমরানের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে তাঁকে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের প্রেসিডেন্ট মাসুদ খানের পাশে বসতে দেখা যায়৷ এ প্রসঙ্গে সিধুর ব্যাখ্যা, অন্তিম মুহূর্তে তাঁর আসন বদল করা হয়৷ পাঁচ মিনিট আগে বলা হয় সামনের সারিতে তাঁর বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে৷ তিনি সেখানেই বসেছেন যেখানে তাঁর জন্য বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে৷

Advertisement ---
---
-----