রক্তাক্ত উপত্যকায় এবার রাতের আঁধারে ফুটবল

শ্রীনগর: বারুদ বন্দুকের আতঙ্ক ভুলে জীবনের ছন্দ চায় কাশ্মীর৷ সেই ছন্দে পা মিলিয়ে শুরু হল ফুটবল টুর্নামেন্ট৷ তবে এইটুকু বললে হয়ত কিছুই বোঝানো যায় না৷ কারণ জম্মু কাশ্মীরের রক্তাক্ত ইতিহাসে এই প্রথম বার রাতে ফুটবল ম্যাচ খেলবে উপত্যকা৷

শ্রীনগরের দিল্লি পাবলিক স্কুল ও আর্মি পাবলিক স্কুলের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত হচ্ছে কাশ্মীরের প্রথম নাইট ফুটবর টুর্নামেন্ট চিনার কাপ৷ স্থানীয় যুবকদের নিয়েই এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হচ্ছে৷ যাতে তাদের দক্ষতা ও প্রতিভা প্রকাশ্যে আসে তাই এই উদ্যোগ বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা৷ শুধু তাই নয়, ফুটবল খেলাকে পেশা হিসেবে বেছে নেওয়ার রাস্তাতে যদি কাশ্মীরি যুবকরা হাঁটেন, তবে কাশ্মীরের ভবিষ্যত বদলে যেতে পারে বলে আশাবাদী উদ্যোক্তারা৷

এই উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে জেনারেল অফিসার কমান্ডিং ১৫ কর্পসের লেফট্যানেন্ট জেনারেল এ কে ভাট বলেন এই ফুটবল ম্যাচের মাধ্যেই কাশ্মীরের স্বরূপ দেখতে পাবেন মানুষ৷

- Advertisement -

তিনি আরও বলেন পাথর ছোঁড়া, বন্দুক আর গুলির লড়াইয়ে যে কাশ্মীরের আত্মা সীমাবদ্ধ নয়, তা প্রমাণ করার একটাই উপায়৷ এই ফুটবল ম্যাচের মধ্যে দিয়েই কাশ্মীরি যুবকরা নিজেদের প্রমাণ করবেন৷ কাশ্মীরের যুব সম্প্রদায় যত বেশী ম্যাচে অংশ নেবেন, রাজ্যে বিক্ষোভ তত কমবে বলে আশাবাদী তিনি৷

তিনি আরও বলেন খেলা মানুষের হৃদয়কে বিস্তৃত করে৷ জীবনের সঠিক মূল্য শেখায়৷ কাশ্মীরি যুবকরাও এই খেলার মাধ্যমেই নিজেদের সঠিক দিশা খুঁজে পাবেন৷ তাঁদের শক্তি ও উদ্যম সঠিক কাজে ব্যবহার করার পথ খুঁজে পাবেন তাঁরা বলে জানান লেফট্যানেন্ট জেনারেল এ কে ভাট৷

এই ফুটবল টুর্নামেন্ট ইতিমধ্যেই নজর কেড়েছে কাশ্মীরের সাধারণ মানুষের৷ বিভিন্ন স্কুলের পড়ুয়ারা যোগ দিতে চেয়ে যোগাযোগ করেছেন উদ্যোক্তাদের সঙ্গে৷ এরকমই একজন অংশগ্রহণকারী তৌকির জানান, ভবিষ্যত গড়ে দিতে পারে ফুটবল৷ জীবনের উদ্দেশ্য বদলে দিতে পারে৷ তাই অংশগ্রহণ করা এই টুর্নামেন্টে৷ কাশ্মীরে প্রতিভার অভাব নেই৷ শুধু প্রয়োজন সেই প্রতিভাদের সঠিক পথ দেখানো, বলে নিজের মত প্রকাশ করেন তৌকির৷

স্থানীয় মানুষ এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন৷ তাঁরা চান এরকম আরও ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হোক৷ এই উদ্যোগের সঙ্গে স্বেচ্ছায় যোগ দিয়েছেন বিদেশি কোচ ডেভিড রবিনসন৷ তিনি বলেন কাশ্মীরের বুকে এরকম উদ্যোগ অবশ্যই একটা বড় পদক্ষেপ৷ এখান থেকেই ভবিষ্যতের জাতীয় স্তরের ফুটবলার উঠে আসবে বলে আশাপ্রকাশ করেন তিনি৷

টুর্নামেন্টে ১৬টি দল অংশ নিচ্ছে৷ দুটি গ্রুপ করে খেলা হবে৷ ফাইনাল ম্যাচটি হবে ১৬ই সেপ্টেম্বর৷

Advertisement ---
-----