‘যুদ্ধক্ষেত্রে গেলে ট্যাংকের তলাতেই ঘুমোতে হবে সেনার মহিলা বাহিনীকেও’

নয়াদিল্লি: সম পরিমাণ সুযোগ-সুবিধা পেলেই আসে সম পরিমাণ দায়িত্ব। তাই ফ্রন্টলাইন কমব্যাট রোলে যোগ দেওয়ার ক্ষেত্রে মহিলারা কোনও অতিরক্তি সুবিধা নেবে কিনা সেটাই তারাই ঠিক করবে। শনিবার সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে এমনটাই জানালেন সদ্য দায়িত্বপ্রাপ্ত সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত।

বর্তমানে সেনাবাহিনীতে মহিলা সদস্য থাকলেও তাঁরা যুদ্ধক্ষেত্রে যান না। দায়িত্ব নেওয়ার পর এদিন প্রথম বার্ষিক সম্মেলনে এসে সেনাপ্রধান বলেন, ‘আমার মতে যদি মহিলাদের যুদ্ধক্ষেত্রে পাঠানো হয় তাহলে, তাঁদের পুরুষদের মতই সমান কাজ করতে হবে।’ তিনি উল্লেখ করেন, যুদ্ধক্ষেত্রে গেলে ট্যাংকের নীচেরই রান্না করেন সেনা জওয়ানেরা। ঘুমোন সখানেই। মহিলাদেরও তাই করতে হবে। সীমান্তে নজরদারি চালানোর সময় শৌচাগারের কোনও ব্যবস্থা থাকে না বলেও জানান তিনি।

উদাহরণ দিয়ে সেনাপ্রধান বলেন, প্রত্যেক ট্যাংকে তিনজন করে সেনা জওয়ান থাকেন। যদি সেই তিনজনের মধ্যে একজ বা দু’জন মহিলা থাকেন, আর তাদেরকে ট্যাংকের তলায় একইসঙ্গে ঘুমোতে হয় তাহলে তাঁরা কি করবেন সে সিদ্ধান্ত নিতে হবে তাঁদেরই। যদি মহিলারা সেই সিদ্ধান্ত নিতে প্রস্তুত থাকেন, তাহলে এই মহিলাদের যুদ্ধক্ষেত্রে অবতীর্ণ করার ইস্যুটি তুলে ধরা উচিৎ।

উল্লেখ্য, বর্তমানে সশস্ত্র বাহিনীর ইঞ্জিনিয়ার পদে মহিলাদের নেওয়া হয়, কিন্তু পদাতিক বাহিনীতে কোনও মহিলা নেই। সম্প্রতি, এয়ারফোর্সে কমব্যাট রোলে যুক্ত করা হয়েছে মহিলাদের। তবে এখনও পর্যন্ত ফরওয়ার্ড বেসে রাখা হয়নি।

Advertisement
----
-----