বিতর্ক কাটিয়ে রায়গঞ্জ পুরসভার পুরপ্রধান পদের ‘দর কষাকষি’ শেষ

রায়গঞ্জ: অবশেষে কাটল জট৷ দীর্ঘ জল্পনা-বিতর্কের পর অবশেষে মিটল দর কষাকষির পালা৷ কলকাতায় তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সির বাড়িতে রুদ্ধদ্বার বৈঠক শেষে রায়গঞ্জ পুরসভা পুরপ্রধানের নাম স্থির করা গিয়েছে বলে তৃণমূল সূত্রের খবর৷ জানা গিয়েছে, দীর্ঘ বৈঠকের পর সন্দীপ বিশ্বাসকে চেয়ারম্যান পদে বসানো হবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷ উপ পুরপ্রধান পদে অরিন্দম সরকারকে বসানো হয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷

চলতি মাসের শুরুতেই রায়গঞ্জ পুরসভার নতুন পুরবোর্ড গঠনের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে প্রকাশ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব৷ পুরপ্রধান পদে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের খবর প্রকাশ হতেই তড়িঘড়ি নির্বাচন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয় তৃণমূল নেতৃত্ব৷ গত ৫ জুন থেকে সপ্তাহ পর্যন্ত নির্বাচন স্থগিত রাখা হয়৷ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কড়া হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে পুরপ্রধানের পদে সন্দীপ বিশ্বাস ও অরিন্দম সরকার গোষ্ঠীর মধ্যে ভোটগ্রহণ কেন্দ্র করে তীব্র সমালোচনা তৈরি হয়৷

সূত্রের খবর, রায়গঞ্জ পুরসভার পরবর্তী পুরপ্রধান পদের জন্য সন্দীপ বিশ্বাসকে নির্বাচিত করার নির্দেশ দেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ কিন্তু, মমতার পছন্দের প্যানের বিরুদ্ধে পাল্টা প্যানেলে ভোটগ্রহণ শুরু হতেই কমর বাঁধে তৃণমূলের জেলা নেতৃত্ব৷ দলের সম্মান বাঁচাতে নির্বাচন সাত দিন বন্ধ রাখার ঘোষণা করা হয়৷ পরে আজ তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সির বাড়িতে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে রায়গঞ্জ পুরসভা পুরপ্রধানের নাম স্থির করা হয় বলে তৃণমূল সূত্রের খবর৷

Advertisement
---