সুনীলের জোড়া গোলে ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপ চ্যাম্পিয়ন ভারত

মুম্বই: বৃষ্টিভেজা লিগের ম্যাচে কেনিয়াকে ৩-০ গোলে পরাজিত করেছিল ভারত৷ জোড়া গোল করেছিলেন সুনীল ছেত্রী৷ একই প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে ফাইনালেও জোড়া গোল করলেন ভারত অধিনায়ক৷ ২-০ গোলে জয় তুলে নিয়ে ব্লু ব্রিগেড ঘরে তুলল ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপের ট্রফি৷

ফিফা ব়্যাংকিং অনুযায়ী কেনিয়ার থেকে বেশ কিছুটা এগিয়ে রয়েছে ভারত৷ তার উপর টুর্নামেন্টে একবার আফ্রিকান দলটিকে হারিয়েছে ব্লু ব্রিগেড৷ স্বাভাবিকভাবেই চেনা প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে মানসিক দিক দিয়ে খানিকটা এগিয়েই মাঠে নেমেছিল ভারতীয় দল৷ মাঠের পারফরম্যান্সে সেই আত্মবিশ্বাসটা ধরা পড়ে সুনীল ছেত্রীদের শরীরি ভাষায়৷

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় গেলেও ফাইনালে সেরা একাদশ নিয়েই মাঠে নামে ভারত৷ কিউয়ি ম্যাচে যাঁদের বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল, তাঁদের প্রত্যেকেই দলে ফেরান কোচ কনস্ট্যান্টাইন৷ তেকাঠির প্রহরী হিসাবে মাঠে ফেরেন গুরপ্রীত৷

ম্যাচের ৮ মিনিটের মাথায় সমর্থকে ঠাসা মুম্বই ফুটবল এরিনায় ঝড় তোলেন সুনীল৷ ফ্রি-কিক থেকে অনিরুদ্ধ থাপার আড়াআড়ি ক্রস পিছন থেকে ধরে কেনিয়ার জালে জড়িয়ে দেন ছেত্রী৷ ভারত শুরুতেই ১-০ গোলে এগিয়ে যায়৷

২৯ মিনিটে অ্যানাসের দুরন্ত ক্রস থেকে ফিনিশিং টাচে ম্যাচের তথা নিজের দ্বিতীয় গোল করেন ভারত অধিনায়ক৷ প্রথমার্ধেই ২-০ গোলের লিড নেওয়া ভারত দ্বিতীয়ার্ধেও বেশ কয়েকটা সুযোগ তৈরি করে৷ তবে নতুন করে দু’দলের কেউই প্রতিপক্ষের রক্ষণ ভাঙতে না পারায় ম্যাচের স্কোরলাইন বদল হয়নি৷

গোটা টুর্নামেন্টে ভারত ১১টি গোল করে ভারত৷ হজম করেছে মাত্র ২টি গোল৷ ১১টি গোলের মধ্যে ৮টি গোল করেছেন সুনীল ছেত্রী৷ স্বাভাবিক ভাবেই টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন তিনি৷ ফাইনালে জোড়া গোল করার সুবাদে ছেত্রী জাতীয় দলের হয়ে গোল করার নিরিখে আর্জেন্তাইন মহাতারকা লিওনেল মেসিকে ছুঁয়ে ফেলেন৷ আর্জেন্তিনার জার্সিতে ১২৪ ম্যাচে ৬৪ গোল রয়েছে মেসির৷ ১০২ ম্যাচে সুনীল ছেত্রীর গোল সংখ্যাও ৬৪৷ বর্তমান ফুটবলারদের মধ্য তাঁর সামনে রয়েছেন কেবল ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো, যিনি দেশের হয়ে ১৫০ ম্যাচে ৮১টি গোল করেছেন৷

চ্যাম্পিয়নের ট্রফি ছাড়াও টুর্নামেন্টের থেকে ভারতের সব থেকে বড় প্রাপ্তি সমর্থকদের উদ্দীপণা৷ সাম্প্রতিক অতীতে জাতীয় দলের খেলার এমন উপচে পড়া গ্যালারি চোখে পড়েনি৷ এমন আকুণ্ঠ সমর্থনের স্বীকৃতি দিয়ে সুনীল ছেত্রীরা ম্যাচের শেষে ট্রফিটি তুলে দেন গ্যালারিতে থাকা সমর্থকদের হাতে৷ অনুরাগীদের হাত ঘুরে তা আবার ফিরে আসে ফুটবলারদের কাছে৷ তাছাড়া পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে কেনিয়া ফুটবলারদের লাইন-আপ করে সম্মান জানায় মেন ইন ব্লু’রা৷ স্পোর্টিম স্পিরিটের এমন ছবিও বিশ্ব ফুটবলে বিরল৷

----
-----