টাইটানিকের শহরে টস হেরে ফিল্ডিং করছে ভারত

সাউদাম্পটন: ইংরেজদের বিরুদ্ধে সিরিজে সমতা ফেরানোর লক্ষ্যে বৃহস্পতিবাার রোল বোলে চতুর্থ টেস্টে নামল কোহলি অ্যান্ড কোং৷ তবে টাইটানিকের শহরে টস হেরে প্রথমে ফিল্ডিং করছে ভারত৷ পাঁচ টেস্টের সিরিজে ট্রেন্ট ব্রিজে তৃতীয় টেস্ট জিতে সিরিজে ব্যবধান কমিয়েছে (১-২) টিম ইন্ডিয়া৷ চতুর্থ টেস্টে দল অপরিবর্তিত রেখেছে ভারতীয় থিঙ্কট্যাঙ্ক৷ ক্যাপ্টেন কোহলির নেতৃত্বে প্রথমবার দল অপরিবর্তিত রাখল ভারত৷

পদস্খলন হলেই সিরিজ হাতছাড়া করতে হবে। তাই জিতেই সিরিজ জয়ের সম্ভাবনা বাঁচিয়ে রাখতে মরিয়া বিরাটাবাহিনী। সেকারণে চতুর্থ টেস্টে নামার আগে উইনিং কম্বিনেশন ভাঙার পক্ষপাতী ছিলেন না অধিনায়ক কোহলি। তাই সিরিজ তথা তাঁর ক্যাপ্টেনসি কেরিয়ারে প্রথমবার অপরিবর্তিত দল নিয়ে রোজ বোলে নামল ভারত। চতুর্থ টেস্টে নামার ১৯৩৬-৩৭ ডন ব্র্যাডম্যানের অস্ট্রেলিয়ার উদাহরণও বারবার উঠে আসছে ভারতীয় শিবিরে। সেবার অ্যাসেজে এভাবে পিছিয়ে পড়েই দুরন্ত প্রত্যাবর্তন করে শেষ পর্যন্ত সিরিজ জিতে নিয়েছিল ব্র্যাডম্যানের ‘ব্যাগি গ্রিন’।

- Advertisement -

তবে রুটদের আরও একবার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেওয়ার আগে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের চোট নিয়ে কিছুটা চিন্তায় ভারতের টিম ম্যানেজমেন্ট। বদলি হিসেবে রবীন্দ্র জাদেজাকে রাখা হলেও শেষ পর্যন্ত ফর্মে থাকা অশ্বিনকে নিয়ে মাঠে নামল বিরাটবাহিনী। ইংল্যান্ড অবশ্য আগের টেস্টের দলে দু’টি পরিবর্তন করেছে৷ চোট না-সারায় ক্রিস ওয়াকসের পরিববর্তে বাঁ-হাতি পেসার স্যাম কুরানকে দলে নিয়েছে ইংল্যান্ড৷ ট্রেন্ট ব্রিজে টেস্ট অভিষেক হওয়া ওলি পোপের পরিবর্তে রোজ বোলে দলে ফিরলেন মোয়েন আলি৷

টস হেরে অবশ্য কিছুটা হতাশ ক্যাপ্টেন কোহলি৷ ব্যাটিং সহায়ক পিচে প্রথমে ফিল্ডিং করতে চেয়েছিল টিম ইন্ডিয়ার৷ কোহলি বলেন, ‘সম্ভবত সিরিজে এটা সবচেয়ে ভালো পিচ৷ টস জিতলে আমরাও প্রথমে ব্যাটিং করতাম৷ তবে আশা করি আমরা এখানে ভালো রান করতে পারব৷’

পাঁচ টেস্টের সিরিজে প্রথম দু’টি টেস্টে হারলেও রবিনহুডের শহরে তৃতীয় টেস্ট জিতে সিরিজ জিইয়ে রেখেছে টিম কোহলি৷ ২০৩ রান ট্রেন্ট ব্রিজে জেতায় টাইটানিকের শহরে বাড়তি আত্মবিশ্বাস নিয়ে মাঠে নেছে ভারত৷ এখানে জিতলে সিরিজ ২-২ করবে বিবাটবাহিনী৷ সেক্ষেত্রে দ্য ওভালে সিরিজ জয়ের সম্ভাবনা থাকবে ভারতের৷

নটিংহ্যাম টেস্ট জয়ের পাশাপাশি ব্যক্তিগত রেকর্ড করেছেন বিরাট৷ দুই ইনিংস মিলিয়ে কোহলির ব্যাটে এসেছে ২০০ রান৷ তাঁর দুরন্ত ব্যাটিংয়ে ভর করেই দুই ইনিংসেই তিনশোর বেশি রান করতে পেরেছে ভারতীয় দল৷ এজবাস্টনে কোহলির ২০০ রান কাজে না এলেও টেন্টব্রিজে বিরাটের ২০০ রানকে ব্যর্থ হতে দেয়নি তাঁর দল৷ মর্যাদার লড়াইয়ে প্রত্যবর্তন করে কিংবদন্তিদের ক্লাবে ঢুকে পড়েন বিরাট৷ এর আগে ব্যাট হাতে ২০০ বা তার বেশি রান করে ৬ বার টেস্ট জেতানোর নজির রয়েছে অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি ডন ব্র্যাডম্যানের৷ যার মধ্যে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৪ বার ও ভারতের বিরুদ্ধে দু’বার এই কীর্তি গড়েছিলেন ব্র্যাডম্যান৷

Advertisement ---
---
-----