লন্ডন: স্বপ্নের টেস্ট শতরান! ইংল্যান্ডের মাটিতে কঠিন পরিস্থিতিতে ছক্কা মেরে সেঞ্চুরির স্বাদ পেলেন ভারতের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্ত৷ মঙ্গলবার ওভালে জোড়া শতরানে লড়াইয়ে ফিরল ভারত৷ ৪৬৪ রান তাড়া করতে গিয়ে মঙ্গলবার ম্যাচের শেষ দিন চা-বিরতি পর্যন্ত ভারতের স্কোর পাঁচ উইকেটে ২৯৮৷

ষষ্ঠ উইকেটে লোকেশ রাহুল ও ঋষভ পন্তের ১৭৭ রানের অবিভক্ত পার্টনারশিপে লড়াইয়ে ফেরে ভারত৷ লাঞ্চ থেকে চা-বিরতিতে কোনও উইকেট না-হারিয়ে ১৩১ রান তুলেছে টিম কোহলি৷ শেষ দু’ঘণ্টা লড়াই করতে পারলে ম্যাচ ড্র করে কিছুটা হলেও মুখরক্ষা করতে পারবে ভারত৷

Advertisement

সোমবার দ্বিতীয় ইনিংসে আট উইকেটে ৪২৩ রানে ডিক্লেয়ার্ড দিয়েছিল ইংল্যান্ড৷ প্রথম ইনিংসে ৪০ রানে এগিয়ে থাকার সুবাদে ভারতের সামনে জয়ের টার্গেট ছিল ৪৬৪ রানে৷ কিন্তু শুরুতেই ভারতীয় ইনিংসের তিন উইকেট তুলে নিয়ে জয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে রুটবাহিনী৷ মাত্র দু’ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ভারতের তিন ব্যাটসম্যান (শিখর ধাওয়ান ১, বিরাট কোহলি ০, চেতেশ্বর পূজারা ০)৷ কিন্তু সেখান থেকে ভারতীয় ইনিংসকে টেনে নিয়ে যান অজিঙ্ক রাহানে এবং রাহুল৷ চতুর্থ উইকেটে ১১৮ রান যোগ করে রাহুল-রাহানে জুটি৷ তার পর দ্রুত দুই উইকেট হারিয়ে ফের চাপে ভারত৷

ব্যক্তিগত ৩৭ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন টিম ইন্ডিয়ার ভাইস-ক্যাপ্টেন৷ আর প্রথম ইনিংসে দুরন্ত হাফ-সেঞ্চুরি করে স্বপ্নের অভিষেক ঘটানো হনুমা বিহারী দ্বিতীয় ইনিংসে খাতা খোলার আগে প্যাভিলিয়নের রাস্তা ধরেন৷ তার পর থেকে আর পিছন ফিরে তাকাননি রাহুল ও পন্ত৷ প্রথম রাহুল তাঁর টেস্ট কেরিয়ারে পঞ্চম সেঞ্চুরিটি করে ভারতকে লড়াই ফেরান৷ তার পর দুরন্ত সেঞ্চুরি আসে পন্তের ব্যাট থেকে৷

১১৮ বলে ১৪টি বাউন্ডারি ও তিনটি ওভার বাউন্ডারির সাহায্যে প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরির স্বাদ পান পন্ত৷ ভারতের প্রথম উইকেটকিপার হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সেঞ্চুরি করে নজির গড়েন দিল্লির এই তরুণ তুর্কি৷ শুধু তাই নয়, ভারতের চতুর্থ ক্রিকেটার (কপিল দেব, হরভজন সিং, ইরফান পাঠানের পর) হিসেবে ছক্কা মেরে টেস্টে সেঞ্চুরি করলেন পন্ত৷

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম দু’টি টেস্টে সুযোগ না-পেলেও নটিংহ্যামে তৃতীয় টেস্টে অভিষেক হয় পন্তের৷ প্রথম টেস্টে উইকেটকিপিং গ্লাভস হাতে পাঁচটি ক্যাচ নিয়ে নজর কেড়েছিলেন দিল্লির এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান৷ আর শেষ টেস্ট লড়াকু সেঞ্চুরি করে নজর কাড়লেন পন্ত৷

----
--