ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই ভারতের ঘরে আসছে রুশ মিসাইল সিস্টেম

নয়াদিল্লি: রাশিয়ার সঙ্গে সামরিক চুক্তি প্রায় শেষ পর্যায়ে। কিছুদিনের মধ্যেই ভারতে আসছে S-400 মিসাইল সিস্টেম। শুক্রবার এবিষয়ে নিশ্চিত করলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামণ।

এব্যাপারে আমেরিকার নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্বেও ভারত এস-৪০০ ট্রায়াম্ফ কেনার চুক্তি সম্পন্ন করবে বলেই জানিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। শুক্রবার সীতারামণ ট্রাম্প প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে ইঙ্গিত দিয়ে বলেন, এটি আমেরিকার একটি আইন, জাতিসঙ্ঘের নয়। ভারত এবিষয়ে তাদের অবস্থান আমেরিকাকে জানিয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ‘প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে রাশিয়ার সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক কয়েক দশকের। ভারত সফরে আসা মার্কিন প্রতিনিধিকেও আমরা বিষয়টি জানিয়েছি।’ প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, এস-৪০০ মিসাইল কেনার বিষয়ে রাশিয়ার সঙ্গে চুক্তি প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। চুক্তি স্বাক্ষরের পর এটি বাস্তবায়ন করতে আড়াই থেকে চার বছর লাগতে পারে বলে জানান তিনি।

- Advertisement -

দেশের এয়ার ডিফেন্স সিস্টেমকে আরও শক্তিশালী করতেই বহুদিন ধরে রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ ‘ট্রায়াম্ফ’ ক্ষেপণাস্ত্ররোধী ব্যবস্থা কেনার কথা চলছিল।

গতবছর ব্রিকস সম্মেলনে দু’দেশের তরফে একটি চুক্তিও স্বাক্ষরিত হয়েছিল। তারপর প্রধানমন্ত্রীর সফর চলাকালীন ফের একবার সেই নিয়ে কথাবার্তা শুরু করেছে মস্কো ও নয়াদিল্লি। একটি সরকারি বিবৃতিতে রাশিয়ার ভারতকে এই এস-৪০০ সরবরাহ করার কথা জানানো হয়েছে।

তবে এই প্রতিরক্ষা চুক্তি হলে আমেরিকার গোঁসা হওয়ার বিষয়টি প্রকাশ্যে আসবে বলে মনে করা হচ্ছে৷ এস-৪০০ ‘ট্রায়াম্ফ’ ক্ষেপণাস্ত্ররোধী ব্যবস্থাটি ৪০০ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে অন্তত ৩০০টি লক্ষ্যবস্তুকে চিহ্নিত করতে সক্ষম৷ একইসঙ্গে তিন ডজন লক্ষ্যবস্তুকে ধ্বংসও করতে পারবে৷

অন্য রাডারে প্রায় ধরাই পড়ে না, এমন ‘স্টিল্থ’ এয়ারক্র্যাফটও এই সিস্টেমের রাডারে ধরা পড়ে যাবে৷ দেশের গুরুত্বপূর্ণ পরমাণু কেন্দ্র ও সরকারি ভবনগুলি এর ফলে নিরাপদ হবে৷ পাক ও চিনা পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্র আক্রমণের বিপদ থেকেও অনেকটা নিশ্চিন্ত থাকবে ভারত৷

Advertisement
---