বিশ্বরেকর্ড করেও ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ ভারত

জাকার্তা: ভারতীয় হকির দু:স্বপ্ন! গ্রুপ লিগে  বিশ্বরেকর্ড গড়া ভারত এশিয়াডের ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ৷ সেমিফাইনালে মালয়েশিয়ার কাছে হেরে সোনা ও রুপোর দৌড় থেকে ছিটকে গেল গতবারের সোনাজয়ীরা৷

স্বাভাবিকভাবে চলতি এশিয়াডে পুরুষদের হকিতে অঘটন! গ্রুপ পর্বের পাঁচ ম্যাচে ৭৬ গোল করে বিশ্বরেকর্ড গড়া সর্দারদের হারে স্বভাবতই হতাশ দেসের ক্রীড়ামহল। সোনাজয়ের প্রত্যাশী ভারতীয় দলের খেলায় এদিন পুরোপুরি উধাও ৭৬ গোলের রেশ। শেষমেষ ‘মেন ইন ব্লু’কে সাডেন ডেথে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের জন্য এশিয়াডের ফাইনালে পৌঁছে যায় মালয়েশিয়া।

নির্ধারিত সময়ে খেলার ফল ছিল ২-২। ম্যাচের শুরু থেকেই ভারতকে এদিন কড়া চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেয় মালয়েশিয়া। বল নিজেদের দখলে রেখে একের পর এক আক্রমণ শানিয়েও গোল করতে ব্যর্থ হয় ভারত। স্ট্রাইকার এবং ড্র্যাগ ফ্লিকারদের ব্যর্থতায় প্রথম দুটি কোয়ার্টারে ডেডলক খুলতে ব্যর্থ হয় তারা। প্রথম ৩০ মিনিটে পাঁচটি পেনাল্টি কর্নার আদায় করেও তা গোলে কনভার্ট করতে পারেননি রুপিন্দার, হরমনপ্রীতরা। স্বভাবতই বাড়ছিল চাপ।

- Advertisement -

কিন্তু তৃতীয় কোয়ার্টারের শুরুতেই অবশ্য ডেডলক ভাঙে ভারতীয় দল। ষষ্ঠ পেনাল্টি কর্ণার গোলে কনভার্ট করে তারা। যদিও সেই লিড বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি ভারত। প্রতি আক্রমণ থেকে ম্যাচে সমতায় ফেরে মালয়েশিয়া। তবে ফের পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করে ম্যাচে ফের এগিয়ে যায় মেন ইন ব্লু। এরপর সবাই যখন ধরে নিয়েছে ভারতের জয় নিশ্চিত, ঠিক তখনই ম্যাচ শেষ হওয়ার দু’মিনিট আগে পেনাল্টি কর্নার থেকে গোল করে সমতায় ফিরে আসে মালয়েশিয়া।

নির্ধারিত সময় অমীমাংসিত থাকায় ম্যাচ সরাসরি গড়ায় টাইব্রেকারে। সেখানেও স্কোরলাইন সমান থাকায় সাডেন ডেথে নিষ্পত্তি হয় ম্যাচের। সাডেন ডেথে প্রথম পাঁচটি শুট আউট গোলে কনভার্ট করলেও ষষ্ঠ শুট আউট মিস করে ভারত। ভারতের ষষ্ঠ শুট বাঁচিয়ে ম্যাচের নায়ক হয়ে ওঠেন মালয়েশিয়ার গোলরক্ষক। সোনা ও রুপো জয়ের সুযোগ হারিয়ে এখন ব্রোঞ্জ জয়ের লক্ষ্যে শ্রীজেশরা।

ব্রোঞ্জ পদক জয়ের জন্য শ্রীজেশরা লড়বেন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে৷ কারণ দ্বিতীয় সেমিফাইনালে জাপানের কাছে ০-১ হেরে সোনা ও রুপো জয়ের স্বপ্নভঙ হয়েছে পাকিস্তানেরও৷ সুতরাং তৃতীয় স্থান অর্জন করে ব্রোঞ্জ জেতার লড়াইয়ে মুখোমুখি ভারত-পাকিস্তান৷ গত এশিয়াডে পাকিস্তানকে হারিয়ে সোনা জিতেছিল মেন ইন ব্লু৷ এবার শ্রীজেশরা ব্রোঞ্জ জিততে পারে কিনা, সেদিকে চোখ থাকবে ভারতবাসীর৷

 

Advertisement ---
---
-----