নয়াদিল্লি: পরমাণু শক্তিচালিত এয়ারক্রাফট কেরিয়ার তৈরি করতে প্রস্তুত ভারত। আমেরিকার সাহায্য নিয়ে কোচিতে তৈরি করা হবে সেই যুদ্ধবিমানবাহী  রণতরী। ২০২৮-এর মধ্যে তা সম্পূর্ণ করার লক্ষ্য নেওয়া হয়েছে।

পরমাণু শক্তিচালিত জাহাজ মাসের পর মাস জ্বালানি না নিয়েও চলতে পারে। শত্রুপক্ষের উপর নজরদারি বাড়াতে আরও বিস্তার করার জন্য নৌবাহিনীর এমনই একটি  রণতরী প্রয়োজন। এই রণতরী তৈরির জন্য ভাবা রিসার্চ সেন্টারের গবেষকদের সঙ্গে কথাবার্তাও চলছে।

আইএনএস বিশাল নামে এই কেরিয়ারের ওজন হবে ৬০,০০০ থেকে ৭০,০০০ টন। এর আগে আইএনএস বিক্রান্তের ওজন ছিল ১৮,০০০ টন, আইএনএস বিরাটের ২৪,০০০ টন ও আইএনএস বিক্রমাদিত্যের ৪৫,০০০ টন। এখনও পর্যন্ত রণতরীর ডিজাইন নিয়ে শেষ পর্যায়ের আলোচনা চলছে বলে জানিয়েছেন নেভি চিফ।

নেভি আধিকারিক জানিয়েছেন, বর্তমানে ভারতের কাছ ২৪০টি এয়ারক্রাফট রয়েছে কিন্তু পরিকাঠামোর অভাব রয়েছে। আইএনএস বিশালের ডিজাইনের জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে ভিনদেশের বিশেষজ্ঞদের। ভারতের নিউক্লিয়ার সাবমেরিন আইএনএস আরিহান্তের জন্য সাহায্য করেছিল রাশিয়া।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মার্কিন নেভির উচ্চপদস্থ কর্তা জানান, ভারতের সঙ্গে যৌথভাবে দ্রুত কাজ এগোচ্ছে। আগামিদিনে যৌথ কাজ নিয়ে ইতিবাচক দিক রয়েছে বলেও মন্তব্য করেছিলেন তিনি।

----
--