দুর্নীতির তালিকায় প্রথম ১০০-র মধ্যে ভারত

নয়াদিল্লি: ২০১৭ সালের গ্লোবাল কোরাপশন পারসেপশন ইনডেক্সে প্রথম ১০০টি দেশের মধ্যে রয়েছে ভারতের নাম৷ ভারত তালিকায় ৮১তম স্থানে রয়েছে৷ তালিকাটি প্রকাশ করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল৷ এশিয়া প্যাসিফিক রিজিয়নে ঘুষ দেওয়া ও সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতার উপর ভিত্তি করে এই তালিকাটি তৈরি করা হয়৷

মোট ১৮০টি দেশকে নিয়ে তালিকাটি তৈরি করা হয়েছিল৷ এর মধ্যে ৮১তম স্থানে রয়েছে ভারত৷ ২০১৬ সালে ভারতের স্থান ছিল ৭৯৷ সেবার ১৭৬টি দেশকে নিয়ে তালিকা তৈরি হয়েছিল৷ ০ থেকে ১০০ পর্যন্ত সংখ্যাকে স্কেল হিসেবে ধরা হয়েছে৷ ০ এখানে সবচেয়ে বেশি দুর্নীতির সংখ্যা হিসেবে দেখানো হয়েছে৷ আর যদি কোনও দেশ ১০০ পয়েন্ট পায়, তাহলে ধরে নিয়ে হবে সেই দেশ সম্পূর্ণ পরিষ্কার৷ ভারত এখানে ৪০ নম্বর পেয়েছে৷ ২০১৫ সালে ভারতের নম্বর ছিল ৩৮৷

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল পরে জানায়, এশিয়া প্যাসিফিস এলাকার কিছু দেশে সাংবাদিক, সমাজকর্মী, বিরোধী দলনেতা এমনকী আইন প্রণয়নকারীদেরও হুমকি দেওয়া হয়৷ এমনকী গোয়েন্দা সংস্থাগুলিকেও অনেক সময় হুমকির মুখোমুখি হতে হয়৷ অনেক সময় তো এদের খুন হয়ে যেতে হয়৷ ফিলিপিন্স, ভারত, মালদ্বীপ হল এমন কয়েকটি দেশ যেখানে এগুলো চলে৷ এই দেশগুলি সবচেয়ে বেশি দুর্নীতির দেশ৷ এখানে সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা সবচেয়ে কম৷ সবচেয়ে বেশি সাংবাদিকের হত্যা এই সব দেশেই হয়ে থাকে৷

গত ৬ বছরে এই দেশগুলিতে ১৫ জন সাংবাদিককে খুন করা হয়েছে৷ কমিটি টু প্রোটেক্ট জার্নালিস্টস (CPJ) একথা জানিয়েছে৷

তালিকায় সর্বোচ্চ স্থানে রয়েছে নিউজিল্যান্ড ও ডেনমার্ক৷ এদের নম্বর যথাক্রমে ৮৯ ও ৮৮৷ অন্যদিকে সিরিয়া, দক্ষিণ সুদান, সোমালিয়া সবচেয়ে কম নম্বর পেয়েছে৷ এদের নম্বর যথাক্রমে ১৪,১২ ও ৯৷ চিন পেয়েছে ৪১ নম্বর৷ এই দেশের স্থান ৭৭৷ ব্রাজিল রয়েছে ৯৬তম স্থানে৷ এই দেশ ৩৭ নম্বর পেয়েছে৷ রাশিয়া পেয়েছে ১৩৫তম স্থান৷ এই দেশের নম্বর ২৯৷

যে দেশগুলিতে গত ৬ বছরে ৯ থেকে ১০ জন সাংবাদিক খুন হয়েছে, সেই দেশগুলি ৪৫ বা তার উপরে স্থান পেয়েছে৷ CPJ-র তরফ থেকে জানানো হয়েছে এই দেশগুলিতে কোনও সাংবাদিককে ভয় নিয়ে থাকতে হয় না৷ এখানে সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতাও রয়েছে৷

Advertisement
----
-----