সোয়েতা ভট্টাচার্য, কলকাতা: গতবছরে সাউথ এশিয়ার দেশগুলির মধ্যে সব থেকে বেশি ইমপ্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইজ (আইইডি) বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে ভারতে৷ এই তথ্য প্রকাশিত হয়েছে একটি টেররিস্ট পোর্টালে৷ এই পোর্টালের তথ্য অনুযায়ী, ভারত এই তালিকায় আফগানিস্তান এবং পাকিস্তান কেউ পিছনে ফেলে শীর্ষ স্থানে জায়গা করে নিয়েছে৷ ভারতে এখনও পর্যন্ত ২০১৮ সালে ৭২টি আইডি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে৷ মে এবং নভেম্বর মাসে এই আইইডি বিস্ফোরনের সংখ্যা নজরকাড়ার মতো৷ অন্যদিকে আফগানিস্তান ২৭ এবং পাকিস্তানে ১৮ টি আইইডি বিস্ফোরণের ঘটনা এখনও পর্যন্ত ঘটেছে৷

এই তথ্যের মধ্যে দেখা যাচ্ছে, সব থেকে বেশি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে ছত্তিশগঢ়ে৷ তারপরেই রয়েছে জম্মু কাশ্মীরের নাম৷ তবে এই ঘটনা প্রথম নয়, এর আগেও ভারত অন্য সব দেশকে পিছনে ফেলে ইমপ্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইজ় (আইইডি) বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় শীর্ষে তালিকায় নাম লিখিয়েছে৷ বিগত কয়েক বছর এই স্থান থেকে সরেনি ভারতের নাম৷ এরপরেই দ্বিতীয় স্থানে ছিল ইরাকের নাম৷ এই তালিকায় তৃতীয় স্থানটি ছিল পাকিস্তানের৷ ইরাকে ২০১৬ সালে ২২১ এবং পাকিস্তানে ১৬১ আইইডি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে৷ সেই সময় সেই রিপোর্টে উল্লেখ করা ছিল যে রিপোর্টটি তে আরও কিছু ঘটনা সংযুক্ত হতে পারে৷

ন্যাশনাল বম্ব ডেটা সেন্টরের অনুযায়ী, শুধু সাউথ এশিয়ার দেশগুলির মধ্যে নয়, বিশ্বজুড়ে বিগত বছরে আইইডি বিস্ফোরণে প্রথমেই রয়েছে ভারত৷ তথ্য অনুযায়ী, সারা দুনিয়ার নিরিখে ভারত, ইরাক এবং পাকিস্তানের থেকে অনেক বেশি এই ধরণের বিস্ফোরনের ঘটনা ঘটেছে৷ ২০১৬ সালের তালিকা সেই প্রমাণ দিচ্ছে ভারত অন্য দেশের তুলনায় আইইডি বিস্ফোরণে সব থেকে এগিয়ে থাকে৷

২০১৬ সালে ভারতে মোট ৪০৬টি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে৷ তার মধ্যে আইইডি বিস্ফোরণের ৩৩৭টি ঘটনায় ঘটেছে বলে তথ্য জানাচ্ছে৷ সেই সময়েও ভারতের মধ্যে এই ধরণের বিস্ফোরণ সব থেকে বেশি ঘটেছে সেই ছত্তিশগঢ়েই৷ ২০১৬ সালে ৩৩৭ এর মধ্যে মোট ৬০ টি আইইডি বিস্ফোরণ ঘটনা ঘটেছিল ছত্তিশগঢ়ে৷ চলতি বছর এখানে এখনও পর্যন্ত এই সংখ্যা প্রায় তিরিশ৷

ঠিক একই ভাবে সাউথ এশিয়ার একটি পোর্টালে দেওয়া তথ্য বলছে, বিস্ফোরণের ঘটনা সংখ্যায় কমলেও ভারত চলতি বছরে সাউথ এশিয়ার দেশগুলির মধ্যে প্রথমেই রয়েছে৷ সাধারণ মানুষের প্রশ্ন, কড়া নজরদারি, বিভিন্ন মাও কার্যকলাপ বা জঙ্গি হামলার মোকাবিলা থেকে এই দেশের মুক্তি পেতে আর কত দিন সময় লাগবে৷

--
----
--