তিরুঅনন্তপুরম: গত কবেকদিন ধরে কেরলে বন্যা পরিস্থিতি ক্রমশ ভয়াবহ হচ্ছে। প্রাণ হারিয়েছেন বহু মানুষ। শুরু থেকেই জোর তৎপরতায় উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে ভারতীয় সেনা। সেই উদ্ধারকাজের ছবি উঠে আসছে বিভিন্ন জায়গায়। যেভাবে সেনাবাহিনীর জওয়ানরা কেরলের বাসিন্দাদের উদ্ধার করছে তা সত্যিই নজিরবিহীন।

কয়েকদিন আগেই একটি ছবিতে দেখা গিয়েছে, কাঠের সেতু তৈরি করে সাধারণ মানুষকে পারাপার করাতে দেখা গিয়েছে। সেই ছবি রীতিমত ভাইরাল হয়। এবার দেখা গেল সেনাবাহিনীর ইঞ্জিইয়ার টাস্ক ফোর্স কিভাবে দু’দিনের মধ্যেই ভাঙা রাস্তা তৈরি করে দিয়েছে।

Advertisement

কেরলের পাল্লাকাড় জেলায় এই রাস্তা তৈরি করা হয়েছে। আত্তাপালমের দিকে যাওয়া NH 544 জলের তোড়ে প্রায় ভেসে গিয়েছিল। যাতায়াতের পথ প্রায় ব্ধ হয়ে গিয়েছিল। ভারতীয় সেনা তৎপরতার সঙ্গে রাস্তা তৈরির কাজ শুরু করে। ইঞ্জিনিয়ার টাস্ক ফোর্সের সহযোগিতায় রাতারাই তৈরি হয়ে যায় সেই রাস্তা। ট্রাফিকের অবস্থাও স্বাভাবিক হয়েছে।

স্বাভাবিকভাবেই সেনাবাহিনীর এই কাজে খুশি এলাকার বাসিন্দারা।

অন্যদিকে, কেরলের মালাপ্পুরামে সেনার ইঞ্জিনিয়ার টাস্ক ফোর্স ৪০ ফুট লম্বা একটি ব্রিজ বানিয়ে ফেলেছে জলবন্দি মানুষকে উদ্ধার করার জন্য৷ ভেঙে পড়া গাছের গুঁড়ি, কাঠের টুকরো ও দড়ি দিয়ে পায়ে চলাচলের যোগ্য ব্রিজ বানানো হয়েছে৷ ওয়ানাড়ে ইতিমধ্যেই এই ব্রিজ দিয়ে ৮০০ মানুষকে উদ্ধার করেছে সেনা৷

কোঝিকোড়, ইদুক্কি, মালাপ্পুরম, কান্নুড় ও ওয়ানাড়ে ১০ কলাম সেনা কাজ করছে৷ যার মধ্যে রয়েছে নৌসেনা, বায়ুসেনা, এনডিআরএফ৷ কেরলে এখনও পর্যন্ত ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে৷

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানিয়েছেন, ত্রাণের ব্যবস্থা করা হয়েছে৷ ৮,৩১৬ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে এখনও পর্যন্ত৷ প্রায় ২০ হাজার ঘরবাড়ি ভেঙে পড়েছে৷ ৮ আগস্ট থেকে কেরালার উত্তর ও মধ্যভাগের বেশীরভাগ অংশই জলের তলায়৷ ৫৪,০০০ বেশি মানুষ গৃহহীন৷

----
--