নির্মম পুলিশ! গলায় সাপ জড়িয়ে জেরা অপরাধীকে

জাকার্তা: গলায় সাপ জড়িয়ে, পিছনে হাত বেঁধে চলছে পুলিশের জেরা৷ ভিডিও ভাইরাল হতেই পুলিশের অমানবিক কাজের নিন্দা করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ধিক্কার জানাচ্ছে নেটিজেনরা৷ অবশ্য ইন্দোনেশিয়ার পাপুয়া প্রদেশে অপরাধীদের জেরার ক্ষেত্রে এরকম অমানবিক পদ্ধতির প্রয়োগ সাধারণ ব্যাপার৷ অতীতে এমন বহু নজিরও আছে৷ তবে এবারের ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক স্তরে ছড়িয়ে পড়ায় চাপে ইন্দোনেশিয়ার পুলিশ৷ মুখরক্ষায় তড়িঘড়ি অভিযুক্ত অফিসারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে সেদেশের পুলিশ৷

যে ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে তাতে দেখা গিয়েছে, অভিযুক্ত মোবাইল চোরের হাত পিছন দিয়ে বাঁধা৷ তার গলায় লম্বা সাপ জড়ানো৷ সাপের মুখ ছেলেটির মুখের কাছে৷ ভয়ে চিৎকার করছে ছেলেটি৷ ছেড়ে দেওয়ার কাতর আর্জি জানাচ্ছে৷ কিন্তু ছেলেটির আবেদনে কোনও ভ্রূক্ষেপ নেই কারোর৷ লক আপে দাঁড়িয়ে সেই দৃশ্য তাড়িয়ে তাড়িয়ে উপভোগ করছে ও হাসছে পুলিশ অফিসাররা৷

- Advertisement -

পাপুয়া ও পশ্চিম পাপুয়াতে অপরাধীদের জেরার ক্ষেত্রে সাপের ব্যবহার নতুন নয়৷ অপরাধীরা যাতে দোষ স্বীকার করে তার জন্য সাপ দেখিয়ে জেরা করা হয়৷ এনিয়ে অনেকদিন ধরেই সোচ্চার মানবাধিকার কর্মীরা৷ তবে এবারের ঘটনায় সোশ্যাল মিডিয়ায় বিরূপ প্রতিক্রিয়া ফেলেছে৷ ইন্দোনেশিয়া পুলিশ এর জন্য ক্ষমা চেয়েছে৷ বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, তদন্তকারী অফিসার পেশাদারিত্বের পরিচয় দেননি৷ এই ঘটনায় জড়িত সকলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷