‘প্রয়োজনীয় শিক্ষকের দাবি জানানোতেই গুলি করে পুলিশ’

স্টাফ রিপোর্টার, ইসলামপুর: ‘‘যে শিক্ষকের প্রয়োজন ছিল আমরা সেই পদে শিক্ষক চেয়েছিলাম। প্রয়োজনীয় শিক্ষকের বদলে অপ্রয়োজনীয় শিক্ষক দেওয়ায় আমরা প্রতিবাদ করেছিলাম বলে পুলিশ আমাদেরকে গুলি করে।’’

গুলিবিদ্ধ হয়ে চিকিৎসা করে বাড়ি ফেরার পর মঙ্গলবার দাড়িভিট উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র বিপ্লব সরকার এমনটাই জানাল। পাশাপাশি পরিবারের সদস্যরা বিপ্লবের চিকিৎসার জন্য সাহায্যের আবেদন জানান।

আরও পড়ুন: বদলে ফেলা হবে গোটা রেলটাকেই! ৩৬ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে এডিবি

- Advertisement -

উল্লেখ্য, গত ২০ সেপ্টেম্বর ইসলামপুর ব্লকের দাড়িভিট উচ্চ বিদ্যালয়ে উর্দু ও সংস্কৃত মাধ্যমের নব নিযুক্ত শিক্ষকদের কাজে যোগ দিতে বাধা দেয় স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা। বাংলা মাধ্যমের শিক্ষকের দাবিতে বিক্ষোভ দেখানোর পাশাপাশি দীর্ঘক্ষণ এলাকার পথ অবরোধ করে রাখে পড়ুয়ারা।

ইসলামপুর থানার পুলিশ অবরোধ তুলতে গেলে ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট পাথর ছুঁড়লে পুলিশ প্রথমে লাঠিচার্জ ও পরে কাঁদানে গ্যাসের শেলগুলি চালায়।

আরও পড়ুন: বন্ধ রুখতে ৪০০০-র বেশি পুলিশ থাকবে রাস্তায়

অভিযোগ, পুলিশ ছাত্র বিক্ষোভ প্রতিরোধে গুলিও চালায়। যদিও পুলিশ গুলি চালাবার অভিযোগ অস্বীকার করেছে। এদিকে গুলিবিদ্ধ হয়ে রাজেশ সরকার ও তাপস বর্মন নামে দুই ছাত্রের মৃত্যু হয়। এই সংঘর্ষে আহত হয়েছিলেন গ্রামের বেশ কয়েকজন বাসিন্দা-সহ স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্র বিপ্লব সরকার। বিপ্লবের পায়ে গুলি লাগে। বিপ্লবকে প্রথমে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়।

আরও পড়ুন: সাফাই কর্মীদের কাজের আধুনিক করার দাবি বারাকপুরে

বেশ কয়েক দিন চিকিৎসার পর বিপ্লবকে সোমবার বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। তার এখন আরও উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন। এর জন্য বাইরে কোথাও নিয়ে যেতে হবে।কিন্তু সেই চিকিৎসা করার মতো পরিবারের কাছে অর্থ নেই। তারা চিকিৎসা করতে পারছেন না।

বিপ্লবের মা সরস্বতী সরকার জানিয়েছেন, ছেলের চিকিৎসার জন্য অর্থের প্রয়োজন। তাই সবার কাছে সাহায্যের আবেদন করেছেন তিনি। তিনি বলেন, ‘‘ছেলে যেন আবার আগের মতো খেলাধুলা করতে পারে,হেঁটে বেড়াতে পারে স্বাভাবিক ভাবে। সেই আশাতেই দিন গুনছি।’’

আরও পড়ুন: ফুটবল ম্যাচ ঘিরে স্কুলে সংঘর্ষের জেরে আহত তিন

Advertisement ---
---
-----