সফল আইএনএস অরিহন্ত: ২০১৬-র ফেব্রুয়ারিতেই সেনার হাতে

নয়াদিল্লি: সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি নিউক্লিয়ার সাবমেরিন অরিহন্ত প্রথম পরীক্ষতেই সম্মানে উত্তীর্ণ হয়েছে। সমুদ্রের গভীরে ডুবে স্বাভাবিকভাবে চলাফেরার করা, যাকে পোশাকি ভাষায় বলে, ‘সি ট্রায়াল’-এ উত্তীর্ণ হওয়া অরিহন্ত-এর আসল পরীক্ষা কিন্তু এ মাসেই। কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে খবর, চলতি মাসেই অরিহন্তের ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়ার ক্ষমতা পরীক্ষা করা হবে। দেশীয় প্রযুক্তিতে নির্মিত এই পরমাণু ক্ষমতাসম্পন্ন সাবমেরিনটির আসল পরীক্ষার দিকে তাকিয়ে রয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক, ডিআরডিও-সহ দেশবাসীও।  নতুন বছরের ফেব্রুয়ারি মাসেই বিশাখাপত্তনমে ভারতীয় নৌসেনার হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে তুলে দেওয়া হতে পারে অরিহন্তকে।

এ দেশে তৈরি অরিহন্ত পরমাণু শক্তিচালিত ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রবাহী সাবমেরিন। ভারতে তৈরি এই ডুবেজাহাজটিই সবচেয়ে ভয়ঙ্কর। পাকিস্তান শুধু নয়, চিনেরও ঘুম কেড়েছে আইএনএস অরিহন্ত নামে এই পারমাণবিক সাবমেরিন। ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে আক্রমণের ক্ষমতা থাকায় আইএনএস অরিহন্ত এক ধাক্কায় ভারতীয় নৌবাহিনীকে পৌঁছে দিয়েছে অভিজাত শ্রেণিতে। গুপ্ত ঘাতকদের নিয়ে শত্রুর মোকাবিলায় তৈরি ভারত ফ্রান্সের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে যে ৬টি ডুবোজাহাজ ভারত তৈরি করছে, সেগুলি ডিজেল-বিদ্যুত্‍ অ্যাটাক সাবমেরিন। এই সাবমেরিন ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করে আক্রমণ চালাতে সক্ষম। অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি এই অ্যাটাক সাবমেরিন অনেক হালকা হওয়ায় প্রতিকূল পরিস্থিতিতেও দ্রুত হামলা চালাতে সক্ষম।

Arihant-2

- Advertisement -

আগামী কয়েক বছরে ধাপে ধাপে এই ডুবোজাহাজগুলি ভারতীয় নৌবাহিনীর অন্তর্ভুক্ত হতে চলেছে। বিশাখাপত্তনমে তৈরি হচ্ছে শত্রুপক্ষের শিরদাঁড়ায় শীতল স্রোত খেলিয়ে দেওয়া আর এক কালান্তক ঘাতক। সেটিও অরিহন্ত শ্রেণির ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রবাহী পারমাণবিক ডুবোজাহাজ। নাম আইএনএস অরিদমন। ভারতীয় প্রযুক্তিতে নির্মীয়মান এই দ্বিতীয় পারমাণবিক সাবমেরিন আইএনএস অরিহন্তের চেয়েও বেশি ক্ষমতাশালী। অরিহন্তের দ্বিগুণ ক্ষেপণাস্ত্র ধারণের ক্ষমতা থাকবে অরিদমনের। অন্য দিকে পাক নৌবাহিনী এখনও শুধুমাত্র কনভেনশনাল বা ডিজেল-বিদ্যুত্‍ অ্যাটাক সাবমেরিনেই পড়ে রয়েছে। চিন থেকে যে ডুবোজাহাজগুলি তারা কিনছে, সেগুলিও ওই একই গোত্রের। ভারতের নৌবাহিনীতে বাড়তে থাকা শক্তিশালী সাবমেরিনের সম্ভার তাই স্বাভাবিক ভাবেই রক্তচাপ বাড়াচ্ছে ইসলামাবাদের। 

Advertisement
---