ভারতীয় নৌবাহিনীতে ফের ঘাতক সাবমেরিন

মুম্বই : ফের ভারতীয় নৌবাহিনীতে এল স্কর্পিন-ক্লাস সাবমেরিন৷ এই নিয়ে তৃতীয় স্কর্পিন সাবমেরিনের অনুমোদন পেল ইন্ডিয়ান নেভি৷ মঙ্গলবার মুম্বইয়ের মাজাগাঁও ডক শিপবিল্ডার্সে এই সাবমেরিনটি নৌবাহিনীতে সংযুক্ত হয়৷ নতুন এই সাবমেরিনের নাম আইএনএস কারাঞ্জ৷

তবে কারাঞ্জ আগেই ভারতীয় নৌসেনার আওতায় ছিল৷ ১৯৬৯ সালের ৪ সেপ্টেম্বর থেকে ২০০৩ সালের অগাস্ট পর্যন্ত ভারতীয় নৌসেনাকে সাহায্য করেছে সে৷ অংশ নিয়েছিল ১৯৭১ সালের যুদ্ধেও৷ টানা ৩৪ বছর বদন্যতার পর অবসর নিয়েছিল কারাঞ্জ৷ তবে এবার আরও একবার স্বমহিমায় ফিরে এসেছে সে৷ এই সাবমেরিনটি ৬৭.৫ মিটার লম্বা৷ উচ্চতা ১২.৩ মিটার৷ এর হাল ফর্ম, ডানা ও হাইড্রোপ্লেন বিশেষভাবে ডিজাইন করা হয়েছে৷ সমুদ্রের নিচে অনেক দূর পর্যন্ত যেতে পারবে কারাঞ্জ৷

স্কর্পিন সাবমেরিনের বিশেষত্ব এটি ডিজেল-ইলেকট্রিক অ্যাটাক সাবমেরিন৷ মূলত অন্য কোনও সাবমেরিনে হামলা চালাতে এটি ব্যবহৃত হয়৷ রাশিয়া ও সোভিয়েত নেভি একে ‘মাল্টি পারপাস সাবমেরিন’ বলে৷ এই ধরনের কিছু কিছু সাবমেরিন থেকে ক্রুজ মিসাইল ছোঁড়া যায়৷

- Advertisement -

আইএনএস কারাঞ্জ সাবমেরিনটি শত্রুপক্ষের সাবমেরিনের দিকে নির্ভুল নিশানা লাগাতে সক্ষম৷ এছাড়া টর্পেডো ও অ্যান্টি সিপ মিসাইল দিয়ে হামলাও চালাতে পারে এটি৷ যে কোনও প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে আসার ক্ষমতা রয়েছে এর৷

এর আগে আরও দুটি স্কর্পিন-ক্লাস সাবমেরিন পেয়েছিল ভারতীয় নৌবাহিনী৷ একটি আইএনএস কালবারি ও অন্যটি আইএনএস কান্দেরি৷ প্রথমটি গত বছর ডিসেম্বরে কাজ শুরু করে দিয়েছে৷ আইএনএস কান্দেরি এখন সমুদ্রে ট্রায়ালে রয়েছে৷ এবার পালা আইএনএস কারাঞ্জের৷ আজ এটি লঞ্চ করল৷

তবে শুধু এই তিনটিই নয়৷ মোট ৬টি সাবমেরিন প্রজেক্ট রয়েছে ভারতের হাতে৷ ২০২০ সালের মধ্যে সেগুলি লঞ্চ করে যাওয়ার কথা৷

Advertisement ---
---
-----