চিনের বাড়াবাড়ি ঠেকাতে সাগরে নামছে ভারতের ‘ভয়ঙ্কর’ এই সাবমেরিন

নয়াদিল্লিঃ  ডোকালাম ইস্যুতে ক্রমশ চাপ বাড়ছে। ইতিমধ্যে ভারতের বিরুদ্ধে কার্যত যুদ্ধ ঘোষণা করার প্রস্তুতি নিচ্ছে বেজিং। প্রস্তুতি শুরু ভারতেরও। সবকিছু ঠিক থাকলে চলতি মাসের শেষেই আইএনএস কালভারিকে জলে ভাসাচ্ছে ভারতীয় নৌবাহিনী। নিউক্লিয়ার সমরাস্ত্রে সজ্জিত এই সাবমেরিন। ভারত কেন, বিশ্বের অন্যতম মারাত্মক সাবমেরিন হিসেবে দেখা হয় আইএনএস এই সাবমেরিনকে। শত্রুর উপর হামলা চালাতে এই সাবমেরিন সদা-প্রস্তুত বলে দাবি করেছেন সামরিক পর্যবেক্ষকরা। শুধু তাই নয়, এই সাবমেরিন নামানোর মধ্যদিয়ে সাগরের তল থেকে লড়াইয়ের ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য সফলতা অর্জন করবে ভারত।

স্কোরপিয়ন শ্রেণির সাবমেরিন আইএনএস কালভারি। এই শ্রেণির ছয়টি সাবমেরিন কিনতে ভারতের ব্যয় হয়েছে মোট ৩৭০ কোটি ডলার। ২০০৫ সালে এই শ্রেণির সাবমেরিন কেনার অর্ডার দেওয়া হয়েছিল। অবশেষে ভারতের হাতে আসছে একটি ভয়ঙ্কর সাবমেরিন। আপাতত যুদ্ধকালীন তৎপরতায় ফরাসি নেভাল গ্রুপের সহযোগিতায় মুম্বইয়ে এই সমস্ত সাবমেরিন নির্মাণের কাজ চলছে। ভারতের রাষ্ট্রীয় প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত শিপইয়ার্ড মাজাগাও ডক শিপবিল্ডার্স লিমিটেডে তৈরি হচ্ছে এগুলো। আইএনএস কালভারি যুক্ত হওয়ার পর ভারতের সাবমেরিনের সংখ্যা দাঁড়াবে ১৫-তে।

Advertisement ---
---
-----