লকভির ভাইপোকে খতমকারী শহিদ সেনাকে মরণোত্তর অশোক চক্র

নয়াদিল্লি: এবছর প্রথমবার অশোক চক্র সম্মান পাচ্ছেন কোনও গরুড় কমান্ডো। মরণোত্তর অশোক চক্র সম্মানে ভূষিত হচ্ছেন জ্যোতি প্রকাশ নিরালা। গত বছরের ১৮ নভেম্বর লস্কর জঙ্গিদের খতম করতে গিয়ে শহিদ হন তিনি।

জম্মু ও কাশ্মীরের হাজিন এলাকায় একা হাতে খতম করেন লস্কর-ই-তইবার শীর্ষনেতাকে। বায়ুসেনার এই জওয়ানের সাহসিকতার গল্প অন্যদের কাছে সত্যিই একটা দৃষ্টান্ত স্থাপন করে। ওই হাজিন এলাকায় জঙ্গিদের উপস্থিতির খবর পেয়ে তল্লাশি চালাতে যান কপোর্রাল র‍্যাংকের এই অফিসার নিরালা। সঙ্গে ছিলেন সেনা জওয়ানেরা। তাঁদের কাছে খবর ছিল যে বান্দিপোরার হাজিন এলাকার এক জঙ্গলে লুকিয়ে রয়েছে অন্ত ছয় জঙ্গি। সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা গিরে ফেলেন ওই এলাকা।

অভিযানের নেতৃত্ব দেন নিরালা। সেটাই ছিল ২০১৭-র অন্যতম সফল অভিযান। ছয় জঙ্গির মধ্যে খতম হয় পাঁচ জঙ্গি। ওই অভিযানেই মৃত্যু হয় লস্করের শীর্ষনেতা জাকিউর রহমান লকভির ভাইপোর। ওই অভিযানে গুলির লড়াইতে শহিদ হন নিরালা। দেশের জন্য আত্মত্যাগ করেন তিনি।

- Advertisement DFP -

জানা যায়, জঙ্গিদের ছোঁড়া তিনটি গুলি এসে লাগে এই সেনা অফিসারের শরীরে। তারপরও লড়াই চালিয়ে যান তিনি।

বিহারের রোহতাসের বাসিন্দা নিরালা। তাঁর মৃত্যুর পর বিহারের মুখ্যমন্ত্রী তাঁর পরিবারকে ১১ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেন। পরিবারের রয়েছেন তাঁর স্ত্রী ও চার বছরের এক কন্যাসন্তান।

Advertisement
----
-----