সুশাসন ! হিন্দু স্ত্রীর জন্য মুসলিম স্বামীকে ধর্ম পরিবর্তনের হুমকি

লখনউ: বিতর্কে উত্তরপ্রদেশ সরকার৷ খোদ সরকারি অফিসার এবার এক মুসলিম ব্যক্তিকে ধর্ম পরিবর্তনের জন্য হুমকি দিলেন৷ ঘটনা লখনউ পাসপোর্ট কার্যালয়ের৷ ওই ব্যক্তির স্ত্রী হিন্দু৷ বিজেপি শাসিত রাজে প্রকাশ্যে সরকারি কর্মীর হুমকির পর বিদেশমন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়েছেন দম্পতি৷ ফলে বিব্রত মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ৷ আগেও বেশ কয়েকবার এই রাজ্যে সংখ্যালঘুদের উপর আক্রমণে তোলপাড় হয়েছে দেশ৷

লখনউয়ের বাসিন্দা মহম্মদ আনস ও তাঁর স্ত্রী তনভি শেঠের অভিযোগ পাসপোর্ট রিনিউ করানোর সময় সরকারি অফিসার ধর্ম পরিবর্তনের কথা বলেন৷ ওই অফিসারের দাবি, স্ত্রী যখন হিন্দু তখন স্বামী কেন মুসলমান থাকবেন৷ তিনিও ধর্ম পরিবর্তন করিয়ে নিন৷ প্রকাশ্যে যেভাবে ওই অফিসার হুমকি দিয়েছেন তাতে চিন্তিত দম্পতি৷ তাঁরা পাসপোর্ট থেকে ফিরে পুরো বিষয় টুইট করে জানান বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে৷

লখনউয়ের আমিনাবাদ এলাকার বাসিন্দা মহম্মদ আনস ও তনভি শেঠের বিয়ে হয় ২০০৭ সালে৷ এই দম্পতির এক কন্যা সন্তান আছে৷ দুজনেই নয়ডার এক বেসরকারি সংস্থার কর্মী৷ মহম্মদ আনস জানিয়েছেন, প্রথম স্ত্রীকে পাসপোর্ট অফিসের কাউন্টারে ডেকে পাঠানো হয়৷ সেখানে সমস্ত নথিপত্র দেখেন অফিসার বিকাশ মিশ্র৷

- Advertisement -

এরপর তিনিই হুমকি দিয়ে বলতে থাকেন ধর্ম পরিবর্তন করুন৷ স্ত্রী রাজি হননি৷ তখন ওই অফিসার প্রকাশ্যেই চিৎকার করে হুমকি দিতে তাকেন৷ এরপর আমাকে ডেকে পাঠানো হয়৷ কাউন্টারেই আমাকে মুসলিম বলে অপমান করেন৷ প্রকাশ্যেই বলে দেন ধর্ম পরিবর্তন করে হিন্দু রীতি মেনে ফের বিয়ে করতে হবে৷ আমি পাসপোর্ট দফতরের সহকারী আধিকারিকের সঙ্গে দেখা করি৷ তিনি পরের দিন আসতে বলেন৷

বাড়ি ফিরে চিন্তিত দম্পতি সবকথা টুইটে জানিয়েছেন বিদেশমন্ত্রীকে৷ তাঁদের বিশ্বাস, সুষমা স্বরাজ বিষয়টি সমাধান করতে পারবেন৷ কারণ তিনি এর আগেও বিভিন্ন সময়ে সাধারণের পাসে দাঁড়িয়েছেন৷

Advertisement ---
---
-----