আইপিএলের দু’টি প্লে-অফ পেল ক্রিকেটের নন্দনকানন

কলকাতা: কলকাতাবাসীর জন্য সুখবর! একাদশ আইপিএলেও আরও দু’টি ম্যাচ পেল ইডেন৷ দু’টি প্লে-অফ ম্যাচ পুণে থেকে সরিয়ে কলকাতায় নিয়ে এল আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল৷ ২৩ মে এলিমিনেটর এবং ২৫ মে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার আয়োজনের দায়িত্ব পেল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গল (সিএবি)৷

এর আগে বোর্ডের দরাজ সার্টিফিকেট পেয়েছে ইডেনের বাইশগজ৷ এবার আরও বড়সড় পুরস্কার পেল বঙ্গ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন৷ চলতি আইপিএলের দু’টি প্লে-অফ আয়োজনের দায়িত্ব পেল সিএবি৷ ফলে  যোগ্যতাঅর্জন করলে ঘরের মাঠে প্লে-অফ খেলার সুযোগ পেতে পারে কলকাতা নাইট রাইডার্স৷

প্লে-অফ আয়োজনের খবরে স্বভাবতই খুশি সিএবি কর্তারাা৷ যুগ্মসচিব অভিষেক ডালমিয়া বলেন, ‘আমাদের প্লে-অফের দাায়িত্ব দেওয়া হয়েছে৷ এতে আমরা অত্যন্ত খুশি৷ আশা করি আমরা এটা সফলভাবে আয়োজন করব৷’

- Advertisement -

প্রাথমিকভাবে একাদশ আইপিলের সূচি ঘোষিত হওয়ার পরেও প্লে-অফ কোথায় অনুষ্ঠিত হবে, তা নির্দিষ্ট করতে কয়েকদিন সময় নেয় বিসিসিআই৷ পরে পুণের মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসেসিয়েশন স্টেডিয়ামকে দায়িত্ব দেওয়া হয় এলিমিনেটর (২৩ মে) ও দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার (২৫ মে) আয়েজনের৷ গতবারের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে প্রথম কোয়ালিফায়ার (২২ মে) ও ফাইনাল (২৭ মে) ম্যাচ আয়োজনের দায়িত্ব পায় মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের ঘরের মাঠ ওয়াংখেড়ে৷

আইপিএলের রোস্টারে প্লে-অফের ভেন্যু হিসাবে মুম্বই ও পুণেকে নির্দিষ্ট করা হলেও ছবিটা বদলে যায় পরবর্তী সময়ে৷ কাবেরি জলবন্টন নিয়ে প্রতিবাদের জেরে চেন্নাই সুপার কিংস তাদের বেস ক্যাম্প চিপক থেকে পুণের এমসিএ স্টেডিয়ামে সরিয়ে নিয়ে যায়৷ চেন্নাইয়ের হোম ম্যাচগুলি আয়োজনের দায়িত্ব পেয়ে যাওয়ায় আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল দু’টি প্লে-অফ (এলিমিনেটর ও দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার) পুণে থেকে অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কথা ভাবতে শুরু করে৷

সঙ্গতকারণেই স্পোর্টিং পিচ ও দর্শক সমাগমের নিরিখে ইডেন দেশের বাকি ক্রিকেট স্টেডিয়ামগুলিকে পিছনে ফেলে প্লে-অফ আয়োজনের দায়িত্ব পেল৷ এমনিতে দর্শকাসনের নিরিখে (৬৭ হাজার) দেশের বৃহত্তম স্টেডিয়াম ইডেন গার্ডেন্স৷ তার উপর কেকেআরের হোম ম্যাচগুলিতে যে হারে দর্শক সমাগত হয়েছে ইডেনের গ্যালারিতে, তাতে অত্যন্ত খুশি আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্যরা৷

Advertisement ---
---
-----