হিরোরা USELESS! এ কী বললেন অঙ্কুশ?

কলকাতা : অঙ্কুশের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে বড় বড় হরফে লেখা “আমি ইউজলেস হিরোদের ব্যাপারে বলতে পারব না কিন্তু হ্যাঁ! ভিলেনরা সবসময়ে স্টাইলেই রেডি হয়৷ গোয়ায় শাসন করার সময় চলে এসেছে৷” জিম সেশনের একটি ছবি পোস্ট করে ‘ভিলেন’ ছবির শেষ স্কেডিউলের আপডেট দিয়েছেন তিনি৷ হিরোর খোলস ছেড়ে অঙ্কুশ এখন ভিলেন৷ সেই নিয়ে তোলপাড় নেটদুনিয়া৷ হিরো-হিরোইন প্রেম, নায়কের ধুন্ধুমার অ্যাকশন দৃশ্য, ড্রামায় ভরপুর কমার্শিয়াল বাংলা ছবি৷

অবশেষে খলনায়কের সঙ্গে লড়ে সত্যের জয়, সততার জয়৷ এই হল গতানুগতিক ছবির কাহিনি৷ তবে আর নয়, টলিপাড়ায় এন্ট্রি নিয়ে নিয়েছেন ‘ভিলেন’৷ যাঁর সতর্কবার্তায় বহুদিন ধরেই ঘুরে ফিরে বেড়াচ্ছিল সোশ্যাল মিডিয়ার আনাচে কানাচে৷ কী সেই বার্তা? আর হিরোদের হিরোগিরি নয়, এবার ভিলেনের ভিলেনগিরিতে কাঁপবে গোটা বাংলা৷ সেই প্রতিশ্রুতিকে বজায় রেখে মুক্তি পেয়েছে ‘ভিলেন’ ছবির ফার্স্ট লুক৷

- Advertisement -

মুখে নৃশংসতার ছাপ, তীক্ষ্ণ দুই চোখে নেই কোনও ভয়, মৃত্যুকে জয় করার ক্ষমতা রাখে সে৷ ‘ভিলেন’৷ যেই অভিনেতা অঙ্কুশকে দর্শক এতদিন দেখে এসেছে, তা যেন আপাদমস্তক পাল্টে গিয়েছে৷ এ কেমন অঙ্কুশ! পোস্টারে তাঁর হাবভাব বলে দিচ্ছে এক নিমেষে সব শেষ করে দেবে সে৷ কিন্তু অফিশিয়াল পোস্টারে রয়েছে ইন্টারেস্টিং একটা দিক৷ অঙ্কুশের ঘৃণা, হিংসা ভরা চোখে কোথাও যেন রয়েছে চাপা দুঃখ৷ দু’চোখের আড়ালে রয়েছে না বলা অনেক কথা৷ এমন কোনও কারণ যা তাঁকে ভিলেন হতে বাধ্য করেছে৷ কী সেই কারণ? জানা যাবে পুজোর মরশুমে৷ ‘হইচই’র মজা, ‘রাজা’ এবং ‘শাহজাহান’র রাজত্ব, কিশোরময় ‘কিশোর’র মাঝে ‘ভিলেন’ ও নাম লেখালেন পুজো রিলিজের তালিকায়৷

অঙ্কুশ ছাড়াও পোস্টারের আরেক চমক মিমি চক্রবর্তী৷ ভিলেনের সঙ্গেই তাল মিলিয়ে লড়াই করবেন তিনি৷ তাই কি? নাকি ভিলেনের প্রেমের জালেই জড়িয়ে ফেলবেন নিজেকে? ফার্স্ট লুকে এমন অগণিত প্রশ্ন মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে ভক্তদের মনে৷ পোস্টার মুক্তি পাওয়ার দশ মিনিটের মধ্যে অংসখ্য রিট্যুইট হয়ে গিয়েছে৷ একটা বাজ়ও ক্রিয়েট করে ফেলেছে ‘ভিলেন’৷ একের পর এক অনুরাগীদের প্রশংসায় ভরছে কমেন্টবক্স৷ কমেন্ট সেকশনে একটা স্লোগানও শুরু হয়ে গিয়েছে ফ্যানেদের মধ্যে৷ ‘এবার পুজোয় চলবে কী? ‘ভিলেন’ ছাড়া আবার কী?’

সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় হয়ে চলেছে ‘ভিলেন’ অঙ্কুশের এন্ট্রি নেওয়ায়৷ এবারে আসা যাক পোস্টারের খুঁটিনাটি বিষয়৷ মিমি এবং অঙ্কুশের ফিজিক উত্তেজনা ছড়িয়েছে চারিদিকে৷ হিরো হিরোইনদের এমন টোনড বডি এর আগে টলিউডে দেখা গিয়েছে কিনা তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ আছে৷ অঙ্কুশের সিক্স প্যাক অ্যাবসের থেকে যেন নজরই সরছে না৷ অবশ্য শুধু অঙ্কুশ বললে ভুল হবে৷ মিমি ফিগারও রীতিমত ফিটনেস গোলস দিচ্ছে মেয়েদের৷ তবে ছবিটি পুজোয় কোন দিন মুক্তি পাবে সে বিষয় এখনও কোনও মন্তব্য করেননি পরিচালক বাবা যাদব৷

Advertisement
---