‘বাধ্য হয়ে বারবার কুমারী হয়ে ২০ জঙ্গি স্বামীকে যৌন তৃপ্তি দিতে হয়েছে আমাকে’

লণ্ডন: আইএস জঙ্গিরা নারীদের যৌন ক্রীতদাসী করে রেখেছে এ খবর প্রকাশ পেয়ে অনেক আগেই৷ তবে এবার এক যৌনদাসীর সঙ্গে চরম নৃশংসতার খবর প্রকাশ করলেন রাষ্ট্রসংঘের এক পদস্থ আধিকারিক৷

জইনাব বাঙ্গুরা নামের ওই আধিকারিক সিরিয়া ও ইয়াকের আইএস কবলিতা এলাকায় যান।  সেখানে আক্রান্তদের কাছে তিনি শোনেন মহিলাদের উপর যৌন নির্যাতনের ঘটনাগুলি।  তিনি জানান।  এক একজন জঙ্গির যৌন নির্যাতনের শিকার প্রায় একাধিক মহিলা।  যৌন হিংসা নিয়ে কাজ করার বিশেষ দায়িত্ব নিয়েই ওই এলাকায় গিয়েছিলেন জইনাব৷ তিনিই জানিয়েছেন, এক জন মহিলাকে ২০ জন আইএস জঙ্গিকে বিয়ে করতে হয়েছে৷ এমনকি, কুমারিত্ব ফিরে পেতে তাকে অস্ত্রপচার করাতে হয়েছে৷ আর বারবারই তাকে বাধ্য হয়ে কুমারী রূপে জঙ্গি স্বামীকে যৌন তৃপ্তি দিতে হয়েছে৷

‘দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট’র একটি প্রতিবেদনে জইনাব জানিয়েছেন, সিরিয়া ও ইরাকে  যৌন নির্যাতনকে ব্যাপক মাত্রায় শিল্পের স্তরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷ জইনাবের মতে একটি আইএস জঙ্গিদের কৌশল৷ তারা নারীদের উপর যৌন নির্যাতনকে প্রাতিষ্ঠানিক করে তুলেছে৷ আইএসের আদর্শ, কার্যকলাপের কেন্দ্র বিন্দুতেই রয়েছে নারীদের ভোগ্য বস্তু হিসেবে দেখে তাদের উপর অত্যাচার চালান৷

- Advertisement -

এ বিষয়ে রাষ্ট্রসংঘের রিপোর্টে বলা হয়েছে, সিরিয়ায় আইএস, বিরোধী অপর জঙ্গিগোষ্ঠী যৌন ক্ষমতা বাড়াতে চিকিৎসা করাচ্ছে৷ এমনতি তারা নিজেদের স্ত্রীদের নৃংশস যৌনাচারে লিপ্ত হতে বাধ্য করছে৷  আইএসে কবল থেকে বেঁচে ফেরা অনেকেই জানিয়েছে, শিশুকন্যাদেরও বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করছে আইএস জঙ্গিরা৷ এমনতি তাদের সঙ্গে বিকৃত যৌন আচরণো করা হচ্ছে৷ এই কারণেই বেশ কিছু শিশু গর্ভবতী হলে তাদের বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে৷

Advertisement
---

Comments are closed.