ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে মার্কিন পণ্য বর্জনের ডাক ইন্দোনেশিয়ায়

জাকার্তা: জেরুজালেম শহরকে ইজরায়েলের রাজধানী ঘোষণা করেছে আমেরিকা। যার বিরুদ্ধে পথে নামল ইন্দোনেশিয়ার মানুষ। সমগ্র দেশবাসীর কাছে মার্কিন পণ্য বর্জনের ডাক দিল বিক্ষোভকারীরা।

স্থানিয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গত সপ্তাহের বৃহস্পতিবার থেকে জাকার্তায় শুরু হয়েছে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বিরধী বিক্ষোভ। রবিবার চতুর্থ দিনের মাথায় এই বিক্ষোভের মাত্রা অনেকগুণ বৃদ্ধি পায়। পুলিশের হিসেবে অই দিন প্রায় ৮০ হাজার বিক্ষোভকারী হাজির ছিলেন জাকার্তার পথে।

আরও পড়ুন- কাশ্মীরকে স্বাধীন করে ৭১-এর যুদ্ধের বদলা নেওয়ার ডাক হাফিজ সঈদের

- Advertisement -

চলতি মাসের ছয় তারিখে জেরুজালেমকে ইজরায়েলের রাজধানী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের স্বীকৃতির সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ইজরায়েলের মার্কিন দূতাবাস তেল আবিব থেকে সরিয়ে জেরুজালেমে নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতির কথাও জানান তিনি। এই নিয়ে বিশ্বজুড়ে তুমুল নিন্দা ও প্রতিবাদ জারি রয়েছে। ট্রাম্পের ঘোষণার পর থেকে পশ্চিম তীর, জেরুজালেমসহ বিশ্বজুড়ে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে।

সেই বিক্ষোভের ধারাবাহিকতায় রবিবার ইন্দোনেশিয়ায় চতুর্থদিনের মতো বিক্ষোভ আয়োজিত হয়। ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তার প্রধান মসজিদ থেকে মিছিল নিয়ে মার্কিন দূতাবাসের সামনে একটি স্কয়ারে জড়ো হন। পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাস বিষয়ে নেওয়া বিতর্কিত সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসতে বিক্ষোভকারীরা ওয়াশিংটনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

ইন্দোনেশিয়া সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন মুসলিম সম্প্রদায় এবং ইসলামি সংস্থার সমর্থনে দেশটির সর্বোচ্চ ধর্মীয় সংগঠন ‘ইন্দোনেশিয়া ওলামা পরিষদ’ এ বিক্ষোভ মিছিল আয়োজন করে। বিক্ষোভকারীরা ‘আল্লা হো আকবর’ স্লোগান দেওয়ার পাশাপাশি ফিলিস্তানি পতাকা এবং “শান্তি,ভালবাসা এবং ফিলিস্তিন মুক্তি” সম্বলিত প্ল্যাকার্ড বহন করছিলেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত সব ধরনের মার্কিন পণ্য বর্জন অব্যাহত রাখতে ইন্দোনেশিয়ার উলেমা পরিষদের মহাসচিব আনয়োর আব্বাস তার দেশের নাগরিকদের কাছে আবেদন করেছেন।

Advertisement ---
---
-----