স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: অন্যান্য খেলায় সুযোগ পেলেও জেলা থেকে এই প্রথম উত্তরবঙ্গের হয়ে স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়া বা সাই-য়ে প্রশিক্ষণে সুযোগ পেল তিন জুডো খেলোয়ার৷

এই তিন খেলোয়াড়ই জলপাইগুড়ির বাসিন্দা৷ তবে তাঁদের জুডো খেলার মুন্সিয়ানাও বেশ তীক্ষ্ণ৷ শুধু জলপাইগুড়ি নয়, উত্তরবঙ্গ থেকে এই প্রথম তিনজন জুডো খেলোয়াড় সাই’য়ে প্রশিক্ষণের সুযোগ পেয়েছে৷

আরও পড়ুন: ফের প্রচুর বিস্ফোরক উদ্ধার বীরভূমে

এই তিন কৃতী জুডো খেলোয়াড় হলেন বিশাল বাড়ই, বাড়ি জলপাইগুড়ির মহামায়া পাড়া, টুম্পা দাস, বাড়ি জেলার পবিত্র পাড়াতে এবং সমর্পিতা সরকার, বাড়ি আদর পাড়াতে। ইতিমধ্যেই কলকাতায় প্রশিক্ষণ নিতে যাওয়ার প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে তাঁরা। এই খবরের পাশাপাশি জলপাইগুড়ি জেলা জুডো সংস্থার সভাপতি শুভেন্দু বসু কৃতী খেলোয়াড়দের সব রকম সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন। সেই সঙ্গে তিন জুডো খেলোয়াড়কে জেলার তরফ থেকে শুভেচ্ছা বার্তাও জানানো হয়।

আরও পড়ুন: আবারও জামিন নাকচ হল বিজেপির জেলা সভাপতির

আগামী দিনে এঁরাই দেশের হয়ে খেলবে বলে আশাবাদী শহরবাসী। এই প্রসঙ্গে জলপাইগুড়ি জেলা জুডো সংস্থার সভাপতি শুভেন্দু বসু বলেন, ‘‘এটা জলপাইগুড়ি জেলা জুডো সংস্থার কাছে খুবই গর্বের বিষয়। চলতি মাসের ৩০ জুলাইয়ের মধ্যে এই তিনজনকে কলকাতার সল্টলেকে সাই’এর প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে যোগ দিতে বলা হয়েছে। এই সুযোগ উত্তরবঙ্গের জুডো খেলোয়াড়দের এক নতুন দিশা দেখাতে পারে৷’’

আরও পড়ুন: রাস্তার কুকুরকে মেরে ফেলায় অভিযুক্ত যুবক

প্রসঙ্গত, জুডো খেলা মার্শাল আর্টের একটি ভাগ৷ বলা যেতে পারে আধুনিক মার্শাল আর্ট৷ জাপানে এই খেলার উৎপত্তি৷ এই খেলার ধরন অনেকটা ক্যারাটের মতোই৷ প্রতিপক্ষকে মাটিতে আছড়ে ফেলে দেওয়া বা যে কোনও প্রকারে তাকে আত্মসমর্পণ করাতে বাধ্য করাই এই খেলার বিষয়৷ জাপানে এই খেলার প্রচলন চোখে পড়ার মতো৷ তবে বর্তমানে উত্তরবঙ্গ থেকে জুডো খেলার তিন খেলোয়াড় উঠে আসায় আশাবাদী জেলাবাসী৷

আরও পড়ুন: ভারতে কখন দেখা যাবে চন্দ্রগ্রহণ? জেনে নিন কয়েকটি বিষয়

----
--