বিনামূল্যে WBCS পরীক্ষার কোচিং দিতে ‘লক্ষ্যভেদ’ ঝাড়গ্রাম পুলিশের

শেখর দুবে, ঝাড়গ্রাম: বেসরকারি কোচিং সেন্টারে WBCS সহ অন্যান্য চাকরির পরীক্ষার কোচিংয়ের জন্য বড় অঙ্কের টাকা নেওয়া হয়। নিম্ন মধ্যবিত্ত এবং গরীব বাড়ির ছেলেমেয়েদের ইচ্ছে থাকলেও তাই কোচিংয়ের সুবিধা নিতে পারেন না। এবার দুস্থ কিন্তু মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের চাকরি পেতে সাহায্যের উদ্যোগ নিল ঝাড়গ্রাম জেলা পুলিশ।

WBCS সহ অন্যান্য চাকরির পরীক্ষার জন্য বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য ‘লক্ষ্যভেদ’ নামের একটি কোচিং শুরু করতে চলেছে তারা। সোশ্যাল মিডিয়া সহ নানা মাধ্যমে এই মর্মে একটি বিজ্ঞাপন দিয়ে আবেপত্র চাওয়া হয়েছে ঝাড়গ্রাম পুলিশের পক্ষ থেকে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে দেওয়া বিজ্ঞাপনটিতে WBCS, SSC, PSC, Rail, সহ অন্যান্য সরকারি চাকরির পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। ‘লক্ষ্যভেদ’-এ প্রশিক্ষণের সুযোগ নেওয়ার জন্য একটি প্রবেশিকা পরীক্ষায় পাশ করতে হবে। পরীক্ষাটি ১৫/০১/২০১৯ মঙ্গলবার বিকেল চারটের সময় অনুষ্ঠিত হবে। বিনপুর PS (পরীক্ষাকেন্দ্র-১) বেলাবেড়িয়া PS (পরীক্ষাকেন্দ্র-২)। এই পরীক্ষায় বসার জন্য অনলাইনে আবেদন করতে হবে www.jhargrampolice.in থেকে। আবেদন করার শেষ তারিখ ১৪/০১/২০১৯। এই পরীক্ষায় পাশ করলেই ‘লক্ষ্যভেদ’-এ পড়ার সুযোগ পাওয়া যাবে।

- Advertisement -

‘লক্ষ্যভেদে’ সপ্তাহে তিনদিন (শুক্র শনি ও রবিবার) বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। পাশাপাশি বিভিন্ন সরকারি পরীক্ষায় ফর্ম ফিলাপের জন্য যে ফিজ নেওয়া হয়ে থাকে তাও বহন করবে ‘লক্ষ্যভেদ’। এমনকি এই কোচিংয়ে পড়া ছাত্রছাত্রীদের যাতায়াতের ব্যবস্থাও করা হবে। এমনটাই জানানো হয়েছে ঝাড়গ্রাম পুলিশের পক্ষ থেকে সোশ্যাল মিডিয়াতে দেওয়া বিজ্ঞাপনটিতে।

সূত্রের খবর ‘লক্ষ্যভেদ’-এর মতো অন্যরকম উদ্যোগের পেছনে রয়েছেন ঝাড়গ্রামের এসপি অরিজিৎ সিনহা। কোচিংটির বিষয়ে তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, “আমরা এখনই এই বিষয়ে বিষদে বলতে চাইছি না। পরীক্ষামূলকভাবে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। স্ক্রিনি টেস্টেরও আয়োজন করা হয়েছে। দেখতে চাই এখান কতজন উৎসাহ দেখান। পরে আমরা এবিষয়ে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলব।”