ফাইল ছবি

শ্রীনগর: ফের এনকাউন্টার জম্মু-কাশ্মীরের বান্দিপোরাতে৷ নিরাপত্তা রক্ষীর গুলিতে খতম হল তিন জঙ্গি৷ শনিবার ডিফেন্স পাবলিক রিলেশনস্ অফিসার এই তথ্য দেন৷ এর দুদিন আগেই সেখানে ২ জঙ্গিকে খতম করা হয়েছিল৷

পড়ুন: OMG গোরুর গুঁতোয় চোখে সর্ষেফুল বিজেপি সাংসদের

Advertisement

জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের মতে হাজিন এলাকার পার মহাল্লাতে জঙ্গি উপস্থিতির কথা গোপন সূত্রে জানতে পেরে নিরাপত্তা রক্ষীরা যৌথ তল্লাসি অভিযানে নেমে পড়ে৷ এই অভিযানের সময়ে রক্ষীদের টার্গেট করে গুলি ছুঁড়তে শুরু করে জঙ্গিরা৷ মনে করা হচ্ছে লস্কর-ই-তইবার জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিল তারা৷ তিন জঙ্গিকে এনকাউন্টারের সময় খতম করে নিরাপত্তা রক্ষীরা৷

এদিকে গতকালই, সেনা-জঙ্গির সংঘর্, নিয়ে মুখ কোলেন ভূ-স্বর্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী৷ জঙ্গি নিকেশ হচ্ছে, সেনা শহিদ হচ্ছেন৷ কিন্তু দু’পক্ষের সংঘর্ষে প্রাণ যাচ্ছে, ক্ষতি হচ্ছে তাদের পরিবারের৷ তাঁরা তাদের প্রিয়জনকে হারাচ্ছেন৷ তাদের এই ক্ষতি মেনে নেওয়া যায় না৷ বৃহস্পতিবার সন্ধে থেকে দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামা, অনন্তনাগ, কুলগাম, সোপিয়ানে পুলিশ কর্মীদের বাড়িতে জঙ্গি তাণ্ডব চলার প্রেক্ষিতে এমনই মন্তব্য করেন জম্মু কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি৷

পড়ুন: পরিবারকে বাঁচাতে হিজবুল কমান্ডারের বাবাকে মুক্তি দিল পুলিশ

২৪ ঘণ্টায় ৫ পুলিশ কর্মীর মোট ৮ পরিবারের সদস্যকে অপহরণ করেছে জঙ্গিরা, এমনই খবর উঠে আসে৷ সেই ঘটনার কড়া নিন্দা করেন পিডিপি নেত্রী মুফতি৷ তিনি বলেন পরিবারের সদস্যরা কি অপরাধ করেছেন? তাঁদের কেন ও কোন অপরাধের শাস্তি দেওয়া হচ্ছে? পরিবারের লোকজনের ওপর আক্রোশ মেটার অর্থ কাপুরুষতার পরিচয় দেওয়া বলে মত প্রকাশ করেন মেহবুবা মুফতি৷

----
--